ব্রেকিং নিউজ

বেগমগঞ্জ কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটকে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত করার দাবী

মুজাহিদুল ইসলাম সোহেল. নোয়াখালী প্রতিনিধি:: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ কৃষি প্রশিক্ষণ ইনিস্টিটিউট প্রতিষ্ঠার পর থেকে দক্ষ প্রশিক্ষক, কৃষি উন্নয়ন ও উদ্ভাবনসহ কৃষি ক্ষেত্রে নানা অবদান রেখেছে। পর্যাপ্ত সুযোগ সুবিধা থাকায় এ ইনিস্টিটিউটটিকে নোয়াখালী কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত করা এখন সময়ের দাবী।

স্থানীয় সংসদ সদস্য মামুর রশিদ কিরন বলেন এটিকে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় করার প্রস্তাব দিয়ে আমি জাতীয় সংসদে একাধিকবার ৭১ বিধিতে বক্তব্য প্রদান করেছি। কিন্তু সংশ্লিষ্ট বিভাগ এবিষয়ে এখনো কোন উদ্যোগ নেয়নি।

নোয়াখালী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও বেগমগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা ডা. এ বি এম জাফর উল্যাহ বলেন, নোয়াখালী কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন এখন সময়ের দাবী। তিনি এই জন্য বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিক হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

ঢাকাস’ নোয়াখালী সমিতির সহ সভাপতি মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন, নোয়াখালীর দক্ষিণ অঞ্চলে প্রতিদিন মেঘনার বুক থেকে জেগে উঠতেছে নতুন নতুন চর এতে আরেকটি বাংলাদেশের সম্ভবনা হাতচানি দিচ্ছে। সাগর থেকে জেগে উঠা নতুন ভুমি কে কাজে লাগানোর জন্য প্রয়োজ পর্যাপ্ত গবেষনা আর এ গবেষনার জন্য প্রয়োজন একটি কৃষি বিশ্ব বিদ্যালয় তাই নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ কৃষি প্রশিক্ষণ ইনিস্টিটিউটকে নোয়াখালী কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় উন্নীত করা এখন নোয়াখালী বাসীর প্রাণের দাবী।

এ বিষয়ে নোয়াখালী কৃষি প্রশিক্ষন ইন্সিটিটিউটের অধ্যক্ষ কৃষিবিদ ফরহাদ হোসেন বলেন ,নোয়াখালী বেগমগঞ্জ কৃষি প্রশিক্ষন ইন্সিটিটিউটি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় হতে পারে।তবে কৃষি ডিপ্লোমাধারীদের অগ্রাধিকার দেয়ার প্রচলন করতে হবে।

নোয়াখালী-৩ এর স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মামুনুর রশিদ কিরন বলেন, নোয়াখালী কৃষি প্রশিক্ষন ইন্সিটিটিউটের প্রায় ৫২ একর জায়গা আছে, এবং বিভিন্ন স্থাপনাও রয়েছে যাতে এটিকে অনায়াসে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় করা সম্ভব। এটিকে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় করার প্রস্তাব দিয়ে আমি মহান জাতীয় সংসদে একাধিকবার ৭১ বিধিতে বক্তব্য প্রদান করেছি। কিন্তু দু:খ জনক হলেও সত্য সংশ্লিষ্ট বিভাগ এবিষয়ে এখনো কোন উদ্যোগ গ্রহন করেনি।

স্থানীয় চৌমুহনী পৌরসভার মেয়র আক্তার হোসেন ফয়সল বললেন, বেগমগঞ্জ কৃষি প্রশিক্ষণ ইনিস্টিটিউট নোয়াখালী কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত করা এখন সময়ের দাবী, তিনি এ ব্যাপারে নোয়াখালীর অভিবাক সড়ক ও সেতু মন্ত্রী এবং দেশ রত্ন উন্নায়নের মডেল প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার সু দৃষ্টি কামনা করেন। একই সাথে (বেগমগঞ্জ কৃষি প্রশিক্ষণ ইনিস্টিটিউটে) ডিপ্লোমা লেখা পড়ার সূযোগ-সুবিধা অক্ষুন্ন রাখতে হবে।

অবস্থান: জাতীয় পর্যায়ে কৃষি উন্নয়ণের লক্ষ্যে ১৯৮১ সালে বেগমগঞ্জ মৌজায় ৫১.৯৮ একর জায়গায় ডিপ্লোমা ইন এগ্রিকালচার শিক্ষাক্রম দিয়ে যাত্রা শুরু করে বেগমগঞ্জ কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট। প্রশাসনিক,একাডেমিক,আবসিক ভবন ও খেলার মাঠসহ ১০ একর,৪ একরের দুইটি পুকুর, ১৭ একর ফসলি জমি, ১ একরে সব্জি বাগান নিয়ে এটি প্রতিষ্ঠিত। বিশাল এ প্রতিষ্ঠানের বাউন্ডারী ওয়াল না থাকায় এর আয়তন সম্পর্কে সাধারণ মানুষ অবহিত নয়।

শিক্ষক কর্মচারী: শিক্ষক কর্মচারীর পদ ৪৮টি, অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষ পদসহ ১৫টি পদ শূন্য। ৫জন মূখ্য প্রশিক্ষক পদ থাকলেও রয়েছে ৪ জন। তন্মধ্যে একজন অধ্যক্ষের দায়িত্বে রয়েছেন। প্রশিক্ষক ৮ জনের মধ্যে ৫ জন, কর্মচারী ২৯ জনের মধ্যে ১৮ জন কর্মরত আছেন।

সম্ভাবনা: প্রশিক্ষণ কাজের সাথে সম্পৃক্ত বিভিন্ন ফার্ম কার্যক্রম থাকলেও এ পদটি বিলুপ্ত । এ প্রতিষ্ঠানকে বর্তমানে আধুনিক শিক্ষা ও উচ্চতর প্রশিক্ষকদের কৃষি বিষয়ক গবেষণার উপযোগী করে তোলা সম্ভব। নোয়াখালীর দক্ষিণ অঞ্চলে প্রতিবছরে যে পরিমান ভূমি নদীগর্ভ থেকে জেগে উঠছে এর সঠিক ব্যবহারের জন্য কৃষি গবেষণা প্রয়োজন। ফলে গবেষণা করতে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিকল্প নেই।

অবদান:নোয়াখালীর উন্নয়নে বর্তমান সরকার যে অবদান রেখেছে তার সাথে বেগমগঞ্জ কৃষি প্রশিক্ষন ইনস্টিটিউটকে
কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত করা হলে আরেকটি নতুন অধ্যায় যুক্ত হবে বলে নোয়াখালীবাসির প্রত্যাশা। যেমনিভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, জেনারেল হাসপাতাল, পুলিশ ট্রেনিং সেন্টার, চিকিৎসক বিদ্যালয় (ম্যাটস), কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, যুব প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ও মুছাপুর রেগুলেটার ।

উল্লেখ্য, শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়টি ৮৬ একর ভূমি ও পার্শ্ববর্তী কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়টি ৫০ একর ভূমির উপর প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। একইভাবে ৫১.৯৮ একর জায়গায় প্রতিষ্ঠিত নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটকে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত করলে দেশের কৃষি ক্ষেত্রে অবদান রাখতে সক্ষম হবে।

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

তাসনীমের অঙ্কনে জলোচ্ছ্বাসে ভেসে তরুণ সংবাদকর্মী জুনাইদের সংবাদ সংগ্রহের দৃশ্য

তাসনীমের অঙ্কনে জলোচ্ছ্বাসে ভেসে তরুণ সংবাদকর্মী জুনাইদের সংবাদ সংগ্রহের দৃশ্য

হঠাৎ মেঘনার অস্বাভাবিক জলোচ্ছ্বাসে ভেসে যাচ্ছে উপকূলের সব। মানুষের দোকানপাট, মসজিদ, ঘর-বাড়ি, ...