ডেস্ক রিপোর্ট :: চীনের উহান প্রদেশ থেকে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস এখনো তাণ্ডব চালাচ্ছে সারাবিশ্বে। প্রতিদিন মৃতের তালিকাতে নাম উঠছে হাজার হাজার মানুষের। সংক্রমিতের তালিকাটাও কম দীর্ঘ হচ্ছে না। প্রতিদিন লাখ লাখ মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন অদৃশ্য ভাইরাসটিতে।

গত একদিনে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৫৫ হাজার ৫৪৯ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৯ হাজার ৫০৬ জনের।

মহামারির শুরুর পর থেকে বিশ্বের সব দেশ ও অঞ্চলের করোনা সংক্রমণের তথ্য হালনাগাদ করা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডো মিটারস সূত্রে এমনটাই জানা গেছে।

তাদের সর্বশেষ তথ্য বলছে, সোমবার (২৫ জানুয়ারি) বাংলাদেশ সময় সকাল ১০টা পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৯ কোটি ৯৭ লাখ ৬৮ হাজার ২১৩ জন। একই সময় নাগাদ বিশ্বে করোনায় মোট মারা গেছেন ২১ লাখ ৩৮ হাজার ৯৪২ জন। করোনা থেকে সেরে ওঠা মানুষের সংখ্যা ৭ কোটি ১৩ লাখ ৬৭ হাজার ৩৫৭ জন।

প্রাণঘাতী ভাইরাসটির থাবায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিতের সংখ্যা ২ কোটি ৫৭ লাখ ২ হাজার ১২৫ জন। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ৪ লাখ ২৯ হাজার ৪৯০ জন।

তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৬ লাখ ৬৮ হাজার ৩৫৬ জন। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ১ লাখ ৫৩ হাজার ৫০৩ জন।

তৃতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৮৮ লাখ ৪৪ হাজার ৬০০ জন। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ২ লাখ ১৭ হাজার ৮১ জন।

তালিকায় রাশিয়ার অবস্থান চতুর্থ। যুক্তরাজ্য পঞ্চম। ফ্রান্স ষষ্ঠ। স্পেন সপ্তম। ইতালি অষ্টম। তুরস্ক নবম। জার্মানি দশম। তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৩০তম।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। চীনে করোনায় প্রথম কোনো রোগীর মৃত্যু হয় ২০২০ সালের ৯ জানুয়ারি। তবে তার ঘোষণা আসে ১১ জানুয়ারি।

২০২০ সালের ১৩ জানুয়ারি চীনের বাইরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় থাইল্যান্ডে। পরে বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়ে অদৃশ্য ভাইরাসটি। এরই মধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ করোনার টিকা প্রদান শুরু করেছে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here