ব্রেকিং নিউজ

বাণিজ্যমেলায় অফারের ছড়াছড়ি

স্টাফ রিপোর্টার :: ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা শুরুর ১২ দিন অতিবাহিত হওয়ায় বিক্রি বাড়াতে চলছে অফারের ছড়াছড়ি। মূল্য ছাড়, বিদেশ ভ্রমণ এবং নিশ্চিত পণ্য ক্রয়ে দেয়া হচ্ছে নানা রকমের অফার। রবিবার বাণিজ্যমেলায় গিয়ে এই চিত্র দেখা গেছে। মধ্যভাগে বেশ জমে উঠেছে মেলা।

বাণিজ্যমেলায় প্রবেশ করতেই মেট্রো শপিং বিডি স্টল। ব্যানারে নানা ধরনের অফার দেয়া আছে। লেখা রয়েছে, ‘কাড়াকাড়ি অফার এক সেট ৩৫০ টাকা, তিন সেট ৯৯৯ টাকা’। স্টলটিতে নারীদের থ্রি পিসসহ বিভিন্ন পণ্য বিক্রয় করা হচ্ছে। এদিকে কারুপণ্য শতরঞ্জি প্যাভিলিয়নে গেলেই দেখা মিলবে প্রতিটি পণ্যে অফার। এখানে কার্পেটে ৫০ শতাংশ ছাড়, ফ্লোর কার্পেটে ৩০ শতাংশ ছাড়, বাহারি পণ্যে ১০ শতাংশ ছাড় দেয়া হচ্ছে। এই প্যাভিলিয়নে কথা হয় বিক্রয়কর্মীদের সঙ্গে। তারা বলছেন, মেলায় আমাদের সব পণ্যে অফার চলছে। ফলে বিক্রয়ও ভালো হচ্ছে। আমাদের এখানে ক্রেতারা তাদের পছন্দের বিভিন্ন কারুপণ্য পাচ্ছেন। মেলায় মূল গেট দিয়ে প্রবেশ করেই ডানপাশে রয়েছে হাতিল ফার্নিচারের প্যাভিলিয়ন। এখানে প্রতিটি ফার্নিচারে ৫-১০ শতাংশ ছাড় দেয়া হচ্ছে। এ ছাড়া ক্রেতারা পাচ্ছেন ১২ মাসের ইএমআই সুবিধা।

প্যাভিলিয়নে কথা হয় বেসরকারি চাকরিজীবী রাহুলের সঙ্গে। তিনি জানান, স্ত্রীকে নিয়ে এসেছেন মেলায়। হাতিলের শো-রুমে সংসার গোছানোর নানা ফার্নিচার রয়েছে। আর মেলায় অফার তো আছেই। এ ছাড়া তাদের ডিজাইনও ভালো, তাই এখানে আসা। হাতিল প্যাভিলিয়নের পেছনেই শার্প প্যাভিলিয়ন। এখানে ফ্রিজ কিনলেই মডেল ভেদে নিশ্চিত ৫-২৪ হাজার টাকা ছাড় রয়েছে। এ ছাড়া টিভি, ওভেন ও অন্যান্য পণ্য কিনলেই রয়েছে মডেল ভেদে ছাড়।

পাশাপাশি ওয়ালটন প্যাভিলিয়ন থেকে ফ্রিজ কিনলেই নিশ্চিত ১০ শতাংশ ছাড়। আর ওয়াশিং মেশিন কিনলে পাতায়া, মালয়েশিয়া ও নেপালে কাপল ট্যুর রয়েছে। প্যাভিলিয়নের সিনিয়র সেলস এক্সিকিউটিভ রহমান বলেন, আমাদের ফ্রিজ ও ওয়াশিং মেশিনে অফার চলছে। মেলার প্রথম দিন থেকেই আমাদের পণ্যে ক্রেতাদের চাহিদা বেশি। আর ক্রেতাদের চাহিদায় আমরাও খুশি।

মেলায় জুট ডাইভারসিফিকেশন প্রমোশন সেন্টারের (জেডিপিসি) প্যাভিলিয়নে গিয়ে দেখা গেছে, ক্রেতাদের সমাগম। ক্রেতারা তাদের পছন্দের ব্যাগ, জুতা, মানিব্যাগ ও ঘরের বিভিন্ন কার্পেট কিনছেন। সেখানের বিক্রয়কর্মীরা বলছেন, মেলায় আমাদের বিভিন্ন পণ্যের চাহিদা রয়েছে। নারীদের ব্যাগ, ঘরের বিভিন্ন আসবাবপত্র, মানিব্যাগ এবং জুতা বেশি বিক্রি হচ্ছে। পাট পণ্য পরিবেশবান্ধব।

গত ১ জানুয়ারি শুরু হওয়া এই মেলা চলবে আগামী ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত দর্শনার্থীরা মেলায় প্রবেশ করতে পারবে। মেলায় প্রবেশে টিকেটের মূল্য প্রাপ্ত বয়স্ক ৪০ টাকা এবং অপ্রাপ্ত বয়স্ক ২০ টাকা। মেলায় স্টল ও প্যাভিলিয়নের সংখ্যা ৪৮৩টি। যার মধ্যে প্যাভিলিয়ন ১১২টি, মিনি প্যাভিলিয়ন ১২৮টি ও বিভিন্ন ক্যাটাগরির স্টল ২৪৩টি। বিদেশি প্যাভিলিয়ন ২৭টি, বিদেশি মিনি প্যাভিলিয়ন ১১টি এবং বিদেশি প্রিমিয়ার স্টলের সংখ্যা ১৭টি।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ইউনেস্কোর তত্ত্বাবধায়নে সারাবিশ্ব বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করবে: প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার ::  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকারে থেকে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী ...