সোহানুর রহমান :: করোনা ভাইরাস জনিত সংকট মোকাবিলায় ‘পাশে আছি’ উদ্যোগের আওতায় বরিশাল জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় মঙ্গলবার (১৪ এপ্রিল) বিকেলে সদর উপজেলার লাহারহাট এলাকায় এ বিতরণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো: আতাউর রাব্বি, ইয়ুথনেট ফর ক্লাইমেট জাস্টিসের প্রধান সমন্বয়কারী শাকিলা ইসলাম এবং প্রতীকি যুব সংসদের নির্বাহী প্রধান সোহানুর রহমান প্রমুখ। পাশে আছি খাদ্য প্যাকেজে ছিল ৭ কেজি চাল, আধা কেজি করে মুশুরি ডাল, আলু, সয়াবিন তেল ও একটি সাবান।
জানা যায়, করোনা ভাইরাসের ( কোভিড-১৯) বিরুপ প্রভাবে আয়-রোজগার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় চরম বিপদে পড়ে জলে ভাসা মান্তারা। করোনা ভাইরাস সম্পর্কে তাদের কাছে  তেমন কোন সচেতনতার বার্তা পৌঁছায়নি। কেবল শুনেছেন কোন এক রোগের কারনে মানুষ মারা যাচ্ছে। তাই হাট বাজার বন্ধ ঘোষনা করা হয়েছে। ফলে বেকার সময় কাটছে মান্তা পরিবারের সব সদস্যদের। কর্মহীন মান্তারা হয়ে পরে নিরন্ন। লকডাউন ঘোষণা  হওয়ার পর থেকে ভাসমান এ পরিবারগুলোর পাশে সহযোগিতা নিয়ে সরকারি-বেসরকারি কোন প্রতিষ্ঠান এগিয়ে আসেনি।
এর ধারাবাহিকতায় পাশে আছি উদ্যোগের মাধ্যমে এই পশ্চাদপদ জণগোষ্ঠীর সাময়িক দুর্দশা লাঘবে খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়। এ উদ্যোগের সাথে এগিয়ে আসে বরিশাল জেলা প্রশাসন।
স্থানীয় উদ্যোক্তা সোহানুর রহমান, উপকূলীয় প্রান্তিক জনগোষ্ঠী মান্তা সম্প্রদায়ের বাসিন্দারা মৌলিক অনেক চাহিদা থেকেই বঞ্চিত। সরকারি সামাজিক নিরাপত্তা সেবাসমূহেও এদের প্রবেশাধিকার নেই। এমনকি করোনা কালীন সরকারী ত্রাণ কার্যক্রম থেকেও তারা অবহেলিত। এই অধিকারহীন মান্তা সম্প্রদায়ের বিপদে আমরা পাশে আছি। এই সংকটকালে সামাজিক সংহতি খুবই গুরুত্বপুর্ন। যারা আমাদের সমাজে অর্ন্তভুক্ত নয়, যাদের পিছিয়ে রেখেছি তাদের দেখভালের দায়িত্বও আমাদের উপরে বর্তায়। ভবিষ্যতেও তাদের সার্বিক জীবনমান উন্নয়নের জন্য আমরা কাজ করে যাব।
Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here