ব্রেকিং নিউজ

ফেসবুকে স্ত্রীর জনপ্রিয়তা বেশি, তাই স্ত্রীকে খুন করলেন

ডেস্ক নিউজ :: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্ত্রীর জনপ্রিয়তা অনেক বেশি। ফলোয়ার সংখ্যা আকাশছোঁয়া। তা দেখে স্বামীর সন্দেহ স্ত্রী তাকে ঠকিয়ে অন্যদের সঙ্গে সম্পর্ক রাখছেন। সেই সন্দেহের বশবর্তী হয়ে স্ত্রীকে পাথর দিয়ে থেঁতলে খুন করলেন যুবক।
সম্প্রতি এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের রাজস্থানের জয়পুরে। স্ত্রীকে খুন করার অভিযোগে ওই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
২৫ বছরের আয়াজ আহমেদ কাজ করেন অনলাইড ফুড কোম্পানির ডেলিভারি বয় হিসেবে। তার স্ত্রী ২২ বছরের রেশমা মাগলানি। দু’বছর আগে একই সংস্থায় কাজ করতেন তারা। সে সময় তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।
তখন বাড়ি থেকে পালিয়ে আর্য সমাজ মন্দিরে বিয়ে করেছিলেন তারা। তাদের তিন মাসের একটি সন্তানও রয়েছে। পরে তাদের বিয়ে মেনে নেন দুই পরিবারের লোকজন। মুসলিম মতে ফের বিয়ে হয় তাদের।
পুলিশ জানিয়েছে, রেশমা সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ জনপ্রিয়। ফেসবুকে তার ফলোয়ার সংখ্যা প্রায় ছয় হাজার। নিয়মিত নিজেদের জীবনযাত্রার ছবি পোস্টও করতেন তারা।
কিন্তু সম্প্রতি আয়াজ সন্দেহ করতে থাকেন, অন্য পুরুষের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে উঠছে স্ত্রীর। সেই নিয়ে তাদের মধ্যে শুরু হয় ঝামেলা। রেশমার ফোন নিয়ে কী বার্তা চালাচালি হচ্ছে তাও দেখতে চাইতেন আয়াজ। এই ঝামেলার জেরে বাপের বাড়ি ফিরে যান রেশমা।
গত রোববার রেশমাকে বাড়ি ফিরিয়ে আনতে যান আয়াজ। মতানৈক্য দূর করা ও এক সঙ্গে বসে বিয়ার খাওয়ার উছিলায় তাকে বাড়ি আসার কথা জানান। তার পর স্কুটি করে স্ত্রীকে জয়রাইডে নিয়ে যান তিনি। পথেই ভারী পাথর দিয়ে রেশমার মুখ থেঁতলে দেন তিনি। এরপর শ্বাসরোধে খুন করে পালিয়ে যান।
পরদিন রেশমার দেহ খুঁজে পায় পুলিশ। এর পরই গ্রেফতার করা হয় আয়াজকে। পুলিশ জানিয়েছে, আয়াজের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ও ২০১ ধারায় মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।
Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

৬৫ বছর একসঙ্গে কাটিয়ে একইদিনে মারা গেলেন স্বামী-স্ত্রী

ডেস্ক নিউজ :: বিয়ের পর ৬৫ বছর একসঙ্গে জীবন যাপনের পর একইদিনে ...