ডেস্ক রিপোর্টঃঃ  ভুয়া ফেসবুক পেজ ও ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অস্বাভাবিক মূল্য ছাড়ের বিজ্ঞাপন দিয়ে বিভিন্ন নামীদামি ব্র্যান্ডের মোবাইল দেওয়ার কথা বলে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে মশিউর রহমান নামে একজনকে চট্টগ্রামের পতেঙ্গা থেকে আটক করেছে র‍্যাব।

রোববার (২৪ জুলাই) চান্দগাঁও ক্যাম্পে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান র‌্যাব-৭ এর উপ-অধিনায়ক মেজর মো. রেজওয়ানুর রহমান।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আটক মশিউর রহমান (১৯) দেশের স্বনামধন্য মোবাইল ব্র্যান্ডগুলোর নাম ব্যবহার করে ১৩টির অধিক ভুয়া ফেসবুক পেজ খোলেন, একই সঙ্গে তার একটি ওয়েবসাইটও আছে। এরপর এগুলোতে বিভিন্ন মোবাইল ফোনের চটকদার বিজ্ঞাপন দিয়ে অস্বাভাবিক মূল্য ছাড়ের প্রলোভন দেখিয়ে গ্রাহকদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ আত্মসাৎ করে আসছিলেন। বিভিন্ন ভুক্তভোগীর কাছ থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, মশিউর বিভিন্ন গ্রাহকের কাছ থেকে ২৪ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন।

সংবাদ সম্মেলন তিনি বলেন, এসব বিষয়ে আইনগত প্রতিকার চেয়ে একটি মোবাইল ফোন কোম্পানি র‌্যাবের কাছে অভিযোগ করে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে পতেঙ্গায় অভিযান পরিচালনা করে রোববার ভোরে মশিউরকে আটক করা হয়। এছাড়া নোয়াখালীতে তার বাসা থেকে ২টি আইপি টেলিফোন, ১টি রাউটার, ১টি মনিটর, ১টি সিপিউ, ১টি কিবোর্ড, ১টি মাউস, ১টি চেক বই, ১টি ইসলামী ব্যাংক ভিসা কার্ড, ১টি কারব্যাগ, ২টি ভিজিটিং কার্ড ও নগদ ১৩ হাজার ১৯০ টাকা জব্দ করা হয়েছে।

র‌্যাবের এ কর্মকর্তা বলেন, প্রতারণার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন মশিউর। তিনি নোয়াখালীর একটি কলেজে এইচএসসিতে পড়াশুনা করেন। গত ৪-৫ মাস আগে একজন প্রবাসী বাংলাদেশির কাছ থেকে অনলাইনের মাধ্যমে ফেসবুক মার্কেটিং এবং ওয়েব ডিজাইনের কাজ শেখেন। এরপর তিনি ১৩টির অধিক ভুয়া ফেসবুক পেজ এবং ওয়েবসাইট খোলে বিভিন্ন ধরনের মোবাইল ফোনের বিজ্ঞাপন দিয়ে অস্বাভাবিক মূল্য ছাড়ের প্রলোভন দেখান। পরে যারা এসব মোবাইল কিনতে আগ্রহী হতেন তাদের কাছ থেকে নগদ অ্যাপসের মাধ্যমে টাকা নিতেন। একপর্যায়ে ওয়েবসাইটে দেওয়া নম্বর ও টাকা আনার নম্বরটি বন্ধ করে দিতেন। এরপর আবার নতুন পেজ খোলে নতুন নম্বর দিয়ে গ্রাহকদের প্রলোভন দেখাতেন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here