ডেস্ক রিপোর্ট::  ঢাকাই সিনেমার একসময়ের ব্যস্ত নায়িকা অপু বিশ্বাস। প্রায় এক যুগের মতো সময় ঢালিউডের শীর্ষ নায়িকা হিসেবে কাজ করেছেন তিনি।

যদিও বর্তমান সময়ে সিনেমার ব্যস্ততা কমেছে তার। গত এক বছর ধরে বিভিন্ন বিজ্ঞাপন, ফটোশুট, শোরুম উদ্বোধনে ব্যস্ত দেখা যাচ্ছে এই নায়িকাকে। বিষয়গুলো নিয়ে কখনো কটাক্ষের মুখেও পড়তে হয়েছে তাকে।

সম্প্রতি ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারেও শোরুম উদ্বোধন নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়েন এই নায়িকা। যেখানে অপু বিশ্বাসকে জিজ্ঞেস করা হয়, ওপেনিংয়ের কাজকে নাকি বাংলাদেশে ‘ফিতা কাটা’ বলে হেয় করা হয়?

এর জবাবে অপু বলেন, হ্যাঁ, অনেকে এটা বলেন। তবে আমি এই ‘ফিতা কাটা’র বিনিময়ে ভাল একটা পারিশ্রমিক পাই। এটা আমার কাজ। আর সমালোচকদের ধন্যবাদ জানাব। তারা যত সমালোচনা করবেন, ততোই আমার কাজ দর্শকের কাছে পৌঁছবে। সমালোচকরা না থাকলে আমার কাজের জায়গাটাই এত বিস্তৃত হত না।

এক প্রশ্নের জবাবে অপু বলেন, ২০০৯ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত কোনো নায়িকা তার সঙ্গে পাল্লা দিতে পারেনি। এই নায়িকার ভাষায়, ‘আসলে আমি যখন যে কাজটা করি, মন দিয়ে করি। অন্য কাউকে আমার জায়গায় ঢুকতে দিই না। ২০০৭-এ আমি শুরু করি। ২০০৯ থেকে ২০১৫ অবধি কোনো নায়িকাকে ঢুকতে দিইনি। ১২ মাসে ২৪টা শুটিং করেছি। আমি যখন যেটা করি, সেখানে আমি অন্য কাউকে খুব বেশি কিছু করতে দিই না। এটা আমার যোগ্যতা। ওই সময়ে বাংলাদেশে আর কোনো নায়িকাকে দেখা যায়নি যে, আমার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে কাজ করছে। তারপর আমি মা হই। সেই সময় অনেক ওজন বেড়ে যায়। গত দু’বছর ধরে ব্র্যান্ডিংয়ের কাজ, ওপেনিং, ফটোশুট নানা ধরনের কাজ করছি। সেই জায়গায় এখন আর কাউকে ঢুকতে দিচ্ছি না। অনেকে অবশ্য অসাধু উপায়ে আমার সমালোচনা করে। সেসব আমি পাত্তা দিই না।’

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here