প্রধামন্ত্রীকে অভ্যর্থনা বিমানবন্দর থেকে গণভবন

যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা সফর শেষে ৩০ সেপ্টেম্বর দেশে ফিরবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ দিন বিমানবন্দর থেকে গণভবন পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশে লাখো জনতা সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানানোর কর্মসূচি গ্রহণ করেছে আওয়ামী লীগ। 

prime-minister-sheikh-hasinaদক্ষ রাষ্ট্র পরিচালনায় অবদান রাখায় ‘প্ল্যানেট ৫০-৫০ চ্যাম্পিয়ন’ ও ‘এজেন্ট অব চেঞ্জ অ্যাওয়ার্ডে’ ভূষিত হন তিনি। বিরল সম্মান লাভের জন্য তাকে অভ্যার্থনা জানানোর প্রস্তুতি নিয়েছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।

প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানানোর জন্য আওয়ামী লীগ বিমান বন্দর থেকে গণভবন পর্যন্ত জাতীয় পতাকা, ফুল, ব্যানার, ফেস্টুনসহ সড়কের দু’পাশে অবস্থান নেয়ার জন্য জনগণের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সফল করার জন্য আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠন ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছেন।  ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তর ও দক্ষিণের নেতাকর্মীরাও প্রস্তুতি নিয়েছেন।

ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ জানিয়েছেন, মহানগর দক্ষিনের অর্ধলক্ষাধিক নেতাকর্মীরা রাস্তায় দুই পাশে দাঁড়িয়ে শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা জানাবেন। এ জন্য প্রতিটি থানায় থানায় প্রস্তুতি সভা করা হয়েছে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, পৃথকভাবে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, শ্রমিক লীগ, মুক্তিযোদ্ধা লীগ, মহিলা লীগসহ দলের সব সহযোগী সংগঠনের সঙ্গে সভা করেছেন । সভায় সকল অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে ব্যাপক জমায়েতের মাধ্যমে অভ্যর্থনা সফল করার নির্দেশ দেন তিনি।

এছাড়াও আলাদাভাবে প্রস্তুতি সভা করেছে যুবলীগ, ছাত্রলীগ, কৃষক লীগ, যুব মহিলা লীগ, ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ।

আওয়ামী লীগের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রী এই বিরল সম্মানে ভূষিত হওয়ায় কৃতজ্ঞ বাঙালি জাতির পক্ষ থেকে আওয়ামী লীগসহ কেন্দ্রীয় ১৪ দল, সহযোগী, ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনসমূহ, বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন হযরত শাহজালাল (রা.) বিমান বন্দর থেকে খিলক্ষেত, কুড়িল ফ্লাইওভার, হোটেল রেডিসন, কাকলীর মোড়, বনানী, জাহাঙ্গীর গেইট, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, বিজয় স্মরণী, সামরিক জাদুঘর জাতীয় সংসদ ভবন মোড় ও গণভবন পর্যন্ত রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে তাকে অভ্যর্থনা জানাবে।

দলের সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম আওয়ামী লীগ, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের প্রতিটি থানা, ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন, সহযোগী, ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনসমূহের নেতৃবৃন্দ ও সর্বস্তরের জনগণকে যথাসময়ে এই অভ্যর্থনা কর্মসূচিতে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

দিনাজপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন

রফিকুর ইসলাম ফুলাল, দিনাজপুর প্রতিনিধি :: মুজিব জন্মশত বার্ষিকীতে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক ...