ইউনাইটেড নিউজ ডেস্ক: ফেসবুকে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে নিয়ে স্ট্যাটাস দেওয়ায় সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার আশরাফুল ইসলাম আশরাফকে তলব করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের ছয় সদস্যের পূর্ণাঙ্গ ভার্চ্যুয়াল বেঞ্চ ওই আইনজীবীকে তলবের আদেশ দেন।

একই সঙ্গে ওই আইনজীবীর ফেসবুক আইডি ব্লক করে দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন দেশের সর্বোচ্চ আদালত। নির্দেশে আগামী ৮ আগস্ট আপিল বিভাগে উপস্থিত হয়ে প্রধান বিচারপতির পদত্যাগ চেয়ে পোস্ট দেওয়ার বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতেও আইনজীবীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

গতকাল বুধবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের পদত্যাগ চেয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেন ব্যারিস্টার আশরাফ। আজ ওই ‘পোস্ট’ আপিল বিভাগের নজরে আনেন অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন।

অ্যাটর্নি জেনারেল আদালতকে বলেন, একজন আইনজীবী প্রধান বিচারপতির পদত্যাগ চেয়ে ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছেন। এরপর ওই পোস্ট আদালতে পড়ে শোনান অ্যাটর্নি জেনারেল।

ফেসবুকে নিজের আইডিতে ব্যারিস্টার আশরাফ বলেছেন, ‘বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতির পদত্যাগ চাই। কারণ যেখানে মাননীয় বিচারপতিগণ তাদের স্ব স্ব থাকার জায়গায় বসে বিচারকার্য পরিচালনা করতে পারতেন এবং পারেন কিন্তু প্রধান বিচারপতি মহোদয় সে ব্যবস্থা না করে, আইনজীবী ও তাদের পরিবার পরিজনকে জীবন-ধারণের চরম সংকটে পতিত করেছেন, অতএব, এই মহান দায়িত্বে থাকার কোন উনার অধিকার নাই।’

করোনার প্রাদুর্ভাবে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সরকারি-বেসরকারি অফিস বন্ধ রাখার নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। প্রধান বিচারপতি এর মধ্যে ভার্চ্যুয়ালি আদালত পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হওয়ার পর ভার্চ্যুয়াল আদালতের কার্যক্রমে হাজার হাজার আসামির জামিনও হয়েছে। কিন্তু অনেক আইনজীবী সরাসরি আদালত পরিচালনার দাবি জানিয়ে আসছেন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here