প্রধানমন্ত্রী আসছে তাই এত সাজ

খাগড়াছড়ি : বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খাগড়াছড়িতে আসছেন দীর্ঘ ১৬ বছর পর।

তার পর জেলা জুড়ে দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে উৎসাহ-উদ্দিপনা আর আনন্দ ঘন পরিবেশের।

এ উপলক্ষে আয়োজিত সকল অনুষ্ঠান সফল ভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে নানা কর্মসুচীর আয়োজন নিয়ে এখন ব্যসত্ম।

বর্তমান সরকারের সময়ে জেলার ৭০০ কোটি টাকার উন্নয়ন হয়েছে এবং ৩২০ কোটি টাকার বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প উদ্ভোধন ও ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনসহ জনসভায় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা ভাষন দিয়ে এ জেলার মানুষকে নতুন কিছু উপহার দিবেন বলে জানান- খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের  সভাপতি ও পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা ।

দলীয় ও প্রশাসন সূত্রে আরো জানা যায়, আগামী ১১ নভেম্বর সোমবার প্রধানমন্ত্রীর  আগমনকে ঘিরে ব্যাপক প্রস্তুতিসহ দলীয় নেতা-কর্মীদের প্রাণ চাঞ্চল্য ও ব্যস্ততম সময় কাটতে দেখা গেছে। নতুন রুপে সাজতে শুরু করেছে খাগড়াছড়ি পৌর শহরের রাসত্মা ঘাট,ব্রীজসহ প্রতিটি স্থাপনা। পৌর শহরের মূল কেন্দ্রে অবস্থিত শাপলা চত্তরের শাপলা ফুল এক নয়াভিরাম দৃশ্য ধারণ করেছে।

বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে নির্মিত হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে তোরণ। খাগড়াছড়িরর প্রিন্টিং প্রেস গুলোতে বিভিন্ন রং বেরংয়ের পোস্টার ও ডিজিটাল ব্যানার বানানোর ধুম পড়েছে। প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নিজকে প্রচার করতে ব্যস্ত সময় পার করছেন আ’লীগ নেতা কমীরা।

সফরকালে তিনি ১৩ উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন ও ৫টি উন্নয়ন মুলক ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন ও করবেন বলে জানা গেছে। এছাড়াও তিনি  খাগড়াছড়ি জেলা অওয়ামীলীগ আয়োজিত জনসভায় ভাষন দেবেন।

খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, প্রধানমন্ত্রী খাগড়াছড়ি আগমন উপলক্ষে ইতোমধ্যে বাস্তবায়িত ১২ টি প্রকল্পের শুভ উদ্বোধন করবেন।

উদ্বোধনযোগ্য প্রকল্পগুলো হল-(১)রামগড় ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল, (২) এপিবিএন বিশেষায়িত ট্রেনিং সেন্টার,(৩) ১০০০ মেট্টিক টন ধারণ যোগ্য গাদ্য গুদাম,(৪) ভাইবোনছড়া ব্রীজ,(৫) দীঘিনালা আবহাওয়া অফিস,(৬) মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন,(৭) বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষনা ইনস্টিটিউট (বিনা),(৮) খাগড়াছড়ি সরকারী কলেজ একাডেমিক ভবন,(৯) মহালছড়ি স্কুল (১০) খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ কমিউনিটি সেন্টার (১১) খাগড়াছড়ি পুলিশ লাইন স্কুল ভবন,(১২) খাগড়াছড়ি মরামা উন্নয়ন সংসদের ছাত্রাবাস উন্নয়ন।

আরো ৫টি প্রকল্পের ভিত্তি প্রসত্মর স্থাপন করবেন বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানিয়েছে।ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনযোগ্য প্রকল্পগুলো হল-(১) গ্রীড সাব-স্টেশন (২) দীঘিনালা ফায়ার সার্ভিস স্টেশন (৩) সিজেএম কোর্ট (৪) তাইন্দং আশ্রায়ন প্রকল্প (৫) শান্তি স্তম্ভ।

প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শেখ হাসিনা সর্বশেষ গত ১৯৯৮সালের ১০ই জানুয়ারি খাগড়াছড়ি ষ্টেডিয়ামে তৎকালীন শান্তিবাহিনী’র অস্ত্রসমর্পন অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসেছিলেন । এরপর তিনি আর খাগড়াছড়িতে আসেনি । তাই এবার তাঁর খাগড়াছড়ি সফর অধিকতর গুরুত্বপূর্ন বলে মনে করছেন আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দসহ সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা ।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী’র আগমনকে সফল ও সার্থক করার লক্ষ্যে  খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের রেষ্ট হাউজ,দলীয় অফিসে জেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের সভাপতি-সম্পাদক মন্ডলীর দফায় দফায় প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে ।

আল-মামুন/

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

করোনা সেবায় অনন্য উদ্যোগ

জাহিদ রহমান :: করোনামুক্ত বাংলাদেশ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বক্ষব্যাধি চিকিৎসক প্রফেসর ডাঃ ...