প্রধানমন্ত্রী’র কাছে শেখ কাওসারী আজাদ-এর খোলা চিঠি

শেখ কাওসারী আজাদ

শেখ কাওসারী আজাদ

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,

সালাম নিবেনআমি শেখ কাওসারী আজাদ খুলনা থেকে বলছি । আমি খুলাঞ্চলের একজন বীর মুক্তিযোদ্ধারা সন্তান । আমি মুক্তিযুদ্ধের আর্দশ ও চেতনায় বিশ্বাসি। মুক্তি সংগ্রাম ওস্বাধীনতাযুদ্ধ গবেষনা ফাউন্ডেশনে” র্দীঘদিন যাবত কাজ করে যাচ্ছিমুক্তিযুদ্ধের তথ্য সংগ্রহ ও সংরক্ষনে। সেহেতু দায়বদ্ধতা থেকে স্বাধীনতা ইতিহাসের কিংবদন্তী, ১৭ মার্চ জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ৯৯তম জন্মর্বাষকীতে আপনার মহানুভবতার সমীপে প্রস্তাব রাখছি যেখুলনাসহ সারা বাংলাদেশের ৪৪৬৯টি সকল ইউনিয়ন পরিষদে ‘’‌বঙ্গবন্ধু কর্নার”- মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত জাদুঘর তৈরী করা হোক  মুক্তিযুদ্ধের আর্দশ ও চেতনাকে তৃণমূল পর্যায়ে পৌছে দিতে । কেননা সূর্দীঘ ৪৮ বছর পর বর্তমান প্রজন্ম তথা তৃণমূলের সাধারন মানুষ এখনো র্পযন্ত বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধ ও জাতির জনকের প্রকৃত ইতিহাস সর্ম্পকে অজানা বিধায় চেতনা বাস্তবায়ন হচ্ছে না, তাই এর মূল্যায়ন ও সঠিক ভাবে হয়ে ওঠে না 

জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রীবর্তমান গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বিশ্বমানবতার প্রতীক জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্বাচনী ইশতেহারে বিশেষ অঙ্গীকার এবং শ্লোগান ছিলো সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ’ এই প্রত্যয় বলেছিলেন আগামী ৫ বছরে আমার গ্রাম হবে আমার শহর। বর্তমান সরকার তারঅঙ্গীকারের বাস্তবায়নে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের এর সাথে ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমেইতিমধ্যে দেশের প্রতিটি গ্রামকে শহরে পরিণত করার কর্মসূচি বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে নেওয়া হয়েছে 

সেহেতু ইউনিয়ন পরিষদ স্থানীয় সরকারের মুখপত্র হয়ে তৃণমূল পর্যায়ে কাজ করে থাকে। দেশকে মাদকমুক্ত ও মানবিক র্চচা এবং বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতা সংগ্রামের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে সঠিক তথ্য চিত্রের ও স্বাধিনতার দলিলাদি বইপত্র ইত্যাদি ভবিষ্যত প্রজন্মের নিকট মুক্তিযুদ্ধের আর্দশ ও চেতনাকে তৃনমূল র্পযায়ে পৌছে দিতেখুলনাসহ সারা বাংলাদেশের ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে একটি গুরুত্বপূর্ন ভুমিকা পালন করতে পারে  প্রতি ইউনিয়ন পরিষদে বঙ্গবন্ধু কর্নার ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সংরক্ষিত থাকবে। অত্র ইউনিয়নের যুদ্ধময়দানের শহীদ মুক্তিযোদ্ধাপ্রায়াত ও জীবিত বীরমুক্তিযোদ্ধাদের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি প্রাপ্তদের ছবিসহ নাম তালিকা সংরক্ষিত থাকবে  এছাড়া অত্র ইউনিয়নে ৭১ এর স্বাধীনতা বিরোধী কুখ্যাত রাজাকার, আল-বদর, আল-সামস ও শান্তি বাহিনীর/কমিটির ছবিসহ নামের তালিকা থাকবে।

বাঙ্গালী জাতিরপথ প্রর্দশক সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবাষির্কী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে ভবিষ্যত প্রজন্মের নিকট মুক্তিযুদ্ধের আর্দশ ও চেতনাকে তৃনমূল র্পযায়ে পৌছে দিতে প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদে একটি করে ‘‌বঙ্গবন্ধু কর্নার-মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত জাদুঘর” তৈরী করা হোকএটাই হবে তৃনমূলের র্পযায়ে ইউনিয়ন ভিত্তিক মুক্তিযুদ্ধের বঙ্গবন্ধু জাদুঘর  বিষয়টি স্বাধীনতার আর্দশ ও চেতনাকে সর্বস্তরের সাধারন তৃনমূল মানুষের মাঝে ও আগামী প্রজন্মের মনের মনি কোঠায় পৌছে দিতে ইউনিয়ন পরিষদে এধরনের মহৎ উদ্যোগ গ্রহন করা রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব ও কর্তব্য 

 

 

শেখ কাওসারী আজাদ

ইউপি সচিব -৭নং গদাইপুর ইউপিপাইকগাছাখুলনা

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

অস্ট্রেলিয়াকেও আর ভয় নেই বাংলাদেশের

নিউজ ডেস্ক :: সাকিব আল হাসানের কাছে ‘মাইন্ড সেট’ মহাগুরুত্বপূর্ণ। সামর্থ্য যদি ...