ইউনাইটেড নিউজ ২৪ ডেস্ক ::

জীবদ্দশায় নিজের সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড ভাঙতে দেখার কথা হয়তো কয়েক বছর আগেও ভাবেননি ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি পেলে। কিন্তু এরপরই ফুটবল বিশ্বে আবির্ভাব ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও লিওনেল মেসির। যারা দুজনই ছাড়িয়ে গেলেন ৭৫৭ গোলের রেকর্ডকে।

চলতি বছরেই পেলের রেকর্ড ভেঙে সর্বোচ্চ গোলের মালিক হয়েছেন রোনালদো। যার গোলসংখ্যা এখন ৮০১টি। আর মঙ্গলবার রাতে ব্রাজিলিয়ান ফুটবল সম্রাটকে দুই থেকে তিনে নামিয়ে দিয়েছেন মেসি। উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচে জোড়া গোল করে ফুটবল ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা এখন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার।

ক্লাব ব্রুগের বিপক্ষে ম্যাচটি শুরুর আগে মেসির গোল ছিল ৭৫৬টি। যা পেলের চেয়ে একটি কম। তার সমানে বসতে মেসি সময় নেন ৩৮ মিনিট। সতীর্থ কাইলিয়ান এমবাপের পাস ধরে মাঝমাঠ থেকে ড্রিবল করে এগিয়ে যান প্রতিপক্ষের রক্ষণে। পরে ডি-বক্সে ঢোকার মুখে বাম পায়ের শটে বল জালে জড়ান।

এই গোলের সুবাদে পেলের সমান ৭৫৭ গোল হয়ে যায় মেসির। পরে ম্যাচের ৭৬ মিনিটের সময় দ্বিতীয় গোলটি করেন মেসি এবং ছাড়িয়ে যান পেলেকে। ডি-বক্সের মধ্যে মেসিকেই ফাউল করা হলে পেনাল্টি পেয়েছিল পিএসজি। যেখান থেকে সহজেই স্কোরশিটে নাম তোলেন মেসি।

স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনার জার্সিতে ৬৭২, আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের হয়ে ৮০ এবং নতুন ঠিকানা প্যারিস সেইন্ট জার্মেইর হয়ে ৬ গোল করে পেলের ৭৫৭ গোলের রেকর্ড ভাঙলেন মেসি।

মঙ্গলবার রাতে চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচটিতে জোড়া গোলের সুবাদে মেসির পেশাদার ক্যারিয়ারে গোল এখন ৭৫৮টি। তার সামনে রয়েছেন শুধুমাত্র ৮০১ গোল করা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। পর্তুগিজ সুপারস্টারকে ছাড়িয়ে যেতে এখন আরও ৪৩ গোল বাকি মেসির। তা পারবেন কি না সময়ই বলে দেবে।

তবে রোনালদোর আরেকটি রেকর্ড ঠিকই ছুঁয়ে ফেলেছেন মেসি। চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ৩৮টি ভিন্ন ক্লাবের বিপক্ষে গোলের রেকর্ড ছিল রোনালদোর। মঙ্গলবার ক্লাব ব্রুগের বিপক্ষে মেসিও করেছেন ৩৮তম প্রতিপক্ষের জালে গোল। এই রেকর্ড বাড়িয়ে নেওয়ার জন্য এখন অপেক্ষা করতে হবে নতুন প্রতিপক্ষের।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here