নিউজ ডেস্ক :: যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও জানিয়েছেন, ট্রাম্প প্রশাসন কোনও পূর্বশর্ত ছাড়াই ইরানের সঙ্গে বৈঠক করতে চায়। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র এই ইসলামি প্রজাতন্ত্রের বিরুদ্ধে চাপ প্রয়োগ অব্যাহত রাখবে।

রোববার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানায় যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদ সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস (এপি)। দেশ দুটির মধ্যে চলমান উত্তেজনা প্রকাশ্য সংঘাত ডেকে আনতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

পম্পেও সুইজারল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইগন্যাজিও ক্যাসিসের সঙ্গে আলোচনা করতে দেশটিতে অবস্থান করছেন। ইরানে যুক্তরাষ্ট্রের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলোতে প্রতিনিধিত্ব করে সুইজারল্যান্ড।

আমেরিকার শীর্ষ কূটনীতিক বলেন, যুক্তরাষ্ট্র পূর্বশর্ত ছাড়াই কথোপকথনে অংশগ্রহণ করতে প্রস্তুত। আমরা ইরানের নেতাদের সঙ্গে বসতে প্রস্তুত।

কিন্তু পম্পেও এটিও স্পষ্ট করেন যে, ইরানের সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি হলেও এই ইসলামি প্রজাতন্ত্র ও বিপ্লবী শক্তির ক্ষতিকর কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের নেতাদের সঙ্গে কথা বলায় তার আগ্রহের সংকেত দিয়েছেন। ইরানি কর্মকর্তারাও এই সম্ভাবনার ইঙ্গিত দিয়েছেন। কিন্তু তাদেরকে বলপ্রয়োগের মাধ্যমে বাধ্য করা যাবে না বলেও জানিয়েছেন তারা।

ইগন্যাজিও ক্যাসিসের সঙ্গে কথা বলার জন্য পম্পেও সুইজারল্যান্ডের বেল্লিনজোনা শহরে অবস্থান করছেন। তিনি সুইজারল্যান্ডের মাধ্যমে ইরানের সঙ্গে যোগাযোগ করতে কিছুটা বিব্রত বোধ করছেন। এর আগেও যুক্তরাষ্ট্র ইরানের সঙ্গে যোগাযোগের ক্ষেত্রে সুইস নির্দেশনার ওপর নির্ভর করে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here