ইয়ানূর রহমান, যশোর প্রতিনিধি ::

যশোরের পল্লীতে মহির ও আনোয়ারা দম্পতি হত্যা মামলায় ছেলে মিলন উদ্দিনকে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। রবিবার বিকেলে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ (৭ম) আদালতের বিচারক জুয়েল অধিকারী এ আদেশ দিয়েছেন। আদালতের পেশকার শাহরিয়ার আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, আসামি মিলন উদ্দীন (৩২) উচ্ছৃংখল প্রকৃতির লোক। তিনি তার পিতা-মাতার কাছ থেকে টাকা নিয়ে সারাদিন ঘুরে বেড়াতেন। তাকে কাজকর্ম করার কথা বললেই পিতা মাতাকে শারিরিকভাবে নির্যাতন করতো।

২০১৯ সালের ২৫ ডিসেম্বর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তিনি তার পিতা মহির উদ্দীনের (৬২) কাছে হাত খরচের জন্য দুই হাজার টাকা চান। টাকা না দেয়ায় মিলন ঘরে থাকা ধারালো গাছিদা দিয়ে পিতাকে উপর্যুপরি কুপিয়ে জখম করেন। এ সময় তার মা আনোয়ারা বেগম ঠেকাতে গেলে মিলন তাকেও কুপিয়ে জখম করেন। এক পর্যায়ে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে মহির ও আনোয়ারা ঘটনাস্থলেই মারা যান।

এ ঘটনায় মিলনের বিরুদ্ধে চৌগাছা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন তার ভাই হুমায়ুন কবির।

দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়া শেষে সাক্ষ্য প্রমাণে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আজ বিচারক জুয়েল অধিকারী আসামি মিলন উদ্দিনকে মৃত্যুদন্ড ও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দেন।

রায় ঘোষণা শেষে বিচারক আসামিকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here