রহিমা আক্তার মৌ :: একদিন দুপুরে ওমেরা ওর রুমে বসে খেলা করছে। হঠাৎ একটা ছোট পাখি ওদের বাসায় ঢুকে পড়ে। ওমেরা পাখিকে দেখে তো অবাক, কারণ ওমেরা সব সময় পাখি দেখেছে বাইরে। তখন ওমেরার মাম্মি ও বাসায়। পাখি দেখতে মাম্মিকে ডাকে। ওর মাম্মি এসে দেখলো পাখিটিকে, অনেক বার চেয়েছে পাখিটাকে বাইরে বের করে দিতে। কিন্তু পাখিটা বের হচ্ছেই না।

ওমেরাদের বাসায় ছিলো আলেয়া নামে একটা মেয়ে। মেয়েটা ওমেরার সাথে খেলা করে, ওর এই সেই কাজ করে দেয়। পাখিটা বাসার ভেতরে ঘুরতে ঘুরতে নিচে নেমে আসে। আলেয়া পাখিটাকে ধরে নিয়ে আসে ওমেরার মাম্মির কাছে।

ওমেরা তো খুবই আনন্দিত পাখিটাকে দেখে। এটা সেটা খেতে দেয় পাখিটাকে। আলেয়া বলে-
পাখি চাল ডাল খায়।

তাই পাখিকে চাল ডাল এনে দেয় খাওয়ার জন্যে। পাখি কয়েকটা খাবার খায়। ওমেরা বলে-
মাম্মি মাম্মি ও পানি খাবে।
নিজেই খেলনা চামচে করে পানি এনে পাখিকে খাওয়ায়।
ওর মাম্মি বলে –
ওমেরা ওকে বারান্দায় নিয়ে ছেড়ে দিই।

কিন্তু ওমেরা দিবে না। ওমেরাকে বলল –
ওর মাম্মি ওকে খুঁজছে, ও মাম্মির কাছে যাবে।

ওমেরা ঠিক বুঝলো, নিজেই পাখিকে বারান্দায় নিয়ে গেলো। হাতটা বাইরের দিকে দিয়ে ছেড়ে দিলো। পাখিটা ঊড়ে চলে যায়।
ওমেরা পরেরদিন আবার খাটের উপরে চাল ডাল দিয়ে রাখলো। ভেবেছে পাখিটা আজ আবার আসবে।

খাটে চাল ছিটিয়ে বসেই আছে। কিন্তু পাখিটা আর এলো না। ওর মাম্মি বুঝিয়ে বলল-
পাখিটা ওর মাম্মির সাথে ঘুমায়, তাই আসবে না।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here