পাকিস্তানে বরযাত্রীবাহী নৌকাডুবি, ১৯ নারীসহ মৃত অন্তত ২১

ডেস্ক রিপোর্টঃঃ  পাকিস্তানে বিয়ের অতিথি বহনকারী একটি নৌকা ডুবে কমপক্ষে ২১ জন প্রাণ হারিয়েছেন। মৃতদের মধ্যে ১৯ জন নারী এবং ২ জন শিশু। সোমবার (১৮ জুলাই) পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের সিন্ধু নদীতে মর্মান্তিক এই নৌকাডুবি ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনাকবলিত নৌকাটিতে ১০০ জনেরও বেশি বিয়ের অতিথি অবস্থান করছিলেন। মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম দ্য ডন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সোমবার পাঞ্জাবের মাচকা পুলিশ সীমানার কাছে সিন্ধু নদীতে শতাধিক বিয়ের অতিথি বহনকারী একটি নৌকা ডুবে যায়। এতে কমপক্ষে ১৯ নারী ও ২ শিশু মারা যান। এ ঘটনায় আরও ৩০ জন নিখোঁজ রয়েছে।

বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে ফেরার পথে নৌকাডুবির এই ঘটনা ঘটে। ধারণক্ষমতার বেশি যাত্রী নেওয়া এবং জোয়ারের উচ্চতার কারণে নৌকাটি ডুবে যায় বলে ধারণা করা হচ্ছে।

দ্য ডন বলছে, শতাধিক যাত্রী বহনকারী একটি নৌকা ডুবে গেছে বলে সোমবার মাচকা থানার হাউস অফিসারের কাছ থেকে একটি ফোন পান জরুরি সেবায় নিযুক্ত দপ্তর। এরপরই উদ্বধার ত’পরতা শুরু হয়।

অন্যদিকে একটি হ্যান্ডআউটে বলা হয়েছে, নৌকাডুবির পর স্থানীয় মানুষ এবং জেলা প্রশাসন ৯০ জন যাত্রীকে উদ্ধার করেছে। এর পাশাপাশি ১৯ জন নারী এবং দু’টি শিশুর লাশও উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানানো হয়।

আরওয়াইকে’র ডেপুটি কমিশনার সৈয়দ মুসা রেজা দ্য ডনকে বলেছেন, নৌকাডুবির ঘটনায় ৮০ জনেরও বেশি যাত্রীকে উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া ১৯ নারী যাত্রীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে এবং বাকি নিখোঁজদের জন্য অনুসন্ধান চলছে।

তবে নৌকাডুবিতে মৃতের সংখ্যা ২৩ জন বলে জানিয়েছেন সাদিকাবাদের সহকারী কমিশনার সেলিম আসাই। তিনি বলেছেন, ১৯ নারী ও চার শিশুসহ মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৩ জনে।

পরিস্থিতি বিবেচনায় জেলা প্রশাসনকে উদ্ধার অভিযান ত্বরান্বিত করার নির্দেশ দিয়েছেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী হামজা শেহবাজ।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here