আর্ন্তজাতিক ডেস্ক :: ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হলেই ধর্ষককে রাসায়নিক ইনজেকশন দিয়ে তার পুরুষত্ব হরণ করা হবে, পাকিস্তানের সংসদ এই মর্মে আইন পাস করেছে। এতে  প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানেরও অনুমোদন মিলেছে। খবরটি দিয়ে পাকিস্তানের অন্যতম প্রধান টিভি নিউজ চ্যানেল জিও টিভি জানিয়েছে, দেশে ক্রমবর্ধমান যৌন নিগ্রহ ও  ধর্ষণের ঘটনা রুখতে সরকার বাধ্য  হচ্ছে এই  ব্যবস্থা নিতে। এ ব্যাপারে চিকিৎসা বিজ্ঞানের যে প্রথার সাহায্য নেয়া হচ্ছে তার নাম ক্যাস্টাসইজেশন। এই প্রথায় রাসায়নিক ইনজেকশন প্রয়োগ করে চিরতরে পুরুষত্ব বিলোপ করা যায়। বহু দেশে নাবালিকা ধর্ষণের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড বহাল থাকলেও পাকিস্তানের নেয়া এই সাজা গ্রহণযোগ্য হয়ে উঠতে পারে।

উল্লেখ্য,  পাকিস্তানে তেহরিক ই ইনসাফ সরকারের আমলে ধর্ষণ ও যৌন নিগ্রহের ঘটনা বেড়ে গেছে। পাকিস্তানের আইনসভায় দীর্ঘ বিতর্কের পর সিদ্ধান্তটি গৃহীত হয়েছে বলে জানিয়েছে জিও টিভি। ২০১৮ সালের একটি ধর্ষণের ঘটনা থেকেই আজকের এই সিদ্ধান্ত।

 

 

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here