মুজাহিদুল ইসলাম সোহেল, নোয়াখালী প্রতিনিধি ::
নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরওয়াপদা ইউনিয়নে ঘরের সিঁধ কেটে হাত-মুখ বেঁধে মাকে গণধর্ষণ ও মেয়েকে ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত প্রধান আসামি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ও সাবেক মেম্বার আবুল খায়ের মুন্সির ৪দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।
বৃহস্পতিবার দুপুরে শুনানি শেষে আসামির ৪দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন, চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সিনিয়র ম্যাজিস্ট্রেট তানিয়া ইসলাম। এরআগে বুধবার আদালতে ওই আসামির ৭দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন, মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা ও চরজব্বার থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জয়নাল আবেদিন। পরে আদালত বৃহস্পতিবার শুনানির দিন ধার্য্য করেন।
মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা জয়নাল আবেদিন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আসামি মুন্সি মেম্বার বর্তমানে জেলা কারাগারে রয়েছে। রিমান্ডের অর্ডার কপি পাওয়ার পর ৪দিন রিমান্ডে রেখে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে চরজব্বার থানায় নেওয়া হবে। ইতোমধ্যে এ মামলায় এজাহারভুক্ত তিন আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত, গত সোমবার দিবাগত রাত ২টার দিকে ঘরের সিঁধ কেটে ভিতরে প্রবেশ করে একজন। পরে সে ঘরের দরজা খুলে দিলে আরও দুইজন ভিতরে প্রবেশ করে। এদের মধ্যে দুই জন পালাক্রমে ওই গৃহবধূকে এবং একজন পাশের কক্ষে তার ১২ বছর বয়সী মেয়েকে ধর্ষণ করে। ধর্ষণ শেষে ওই গৃহবধূর হাত-পা ও মুখ বেঁধে ঘরে থাকা স্বর্ণ ও নগদ টাকা লুট করে নিয়ে যায় তারা।
গভীর রাতে শিশুদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে গৃহবধূর বাঁধন খুলে দেয় এবং বিষয়টি জরুরি সেবা ৯৯৯ এর মাধ্যমে চরজব্বার থানায় অবগত করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে।
Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here