মুজাহিদুল ইসলাম সোহেল, নোয়াখালী প্রতিনিধি ::

নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরজুবলি ইউনিয়নে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে চা দোকানে ঢুকে পড়েছে একটি পাওয়ার টিলার। এতে গাড়িটির চাপায় চা দোকানের সামনে থাকা বাহার মাঝি (৬০) ও জামাল উদ্দিন নামের দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আরও দুইজন গুরুতর আহত হয়েছেন। ঘটনার পর দ্রুত পালিয়ে যায় গাড়ি চালক।

সোমবার দুপুর ১২টার দিকে চরজব্বর-সোনাপুর সড়কের সুবর্ণচর ফায়ার সার্ভিসের সামনে মুন্সি মার্কেট এলাকায় এ দূর্ঘটনা ঘটে। নিহত বাহার মাঝি চরজুবলি ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের আলী আজমের ছেলে ও জামাল উদ্দিন চর আমান উল্যাহ গ্রামের সিরাজ উদ্দিনের ছেলে ।

আহতরা হচ্ছেন, উত্তর কচ্ছপিয়া গ্রামের নজির আহমদের ছেলে দুলাল হোসেন (৩৭) ও চরবাটা গ্রামের বাতান মিয়া (৭৫)।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দুপুরে সোনাপুর থেকে চরবাটার উদ্দেশ্যে একটি খালি পাওয়ার টিলার ছেড়ে আসে। গাড়িটি দুপুর ১২টার দিকে সুবর্ণচর ফায়ার সার্ভিসের সামনে পৌঁছলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মুন্সি মার্কেটের তৌহিদ স্টোরের ভিতরে ঢুকে পড়ে। এতে ওই দোকানের সামনে বসে চা খাওয়া ৬জন ব্যক্তির মধ্যে ৪জনকে চাপা দেয় গাড়িটি। এতে ওই দোকানের একটি দেয়াল সহ সামনের অংশ ধুমড়ে মুছড়ে গিয়ে ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। পরে স্থানীয় লোকজন আহতদের দ্রুত উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বাহার মাঝিকে মৃত ঘোষণা করেন। অপর আহতদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

চরজব্বার থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জয়নাল আবেদীন বলেন, ঘটনার পর দ্রুত গাড়ি চালক পালিয়ে যাওয়ায় তাকে আটক করা সম্ভব হয়নি। গাড়িটি পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগের ভিত্তিতে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here