ব্রেকিং নিউজ

নারী নয়, মানুষ দিবস হওয়া উচিত: রুবানা হক

স্টাফ রিপোর্টার :: নারী দিবস নয়, মানুষ দিবস হওয়া উচিত- মন্তব্য করে পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর সভাপতি রুবানা হক বলেছেন, স্বচ্ছতার সঙ্গে স্পষ্ট করে বলতে পারলে মানুষের জয় হয়, শুধু নারীর নয়।

আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে শুক্রবার রাজধানীর ডেইলি স্টার ভবনে ইউএসএইড ও এবিসি রেডিওর উদ্যোগে আয়োজিত বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

বিতর্ক প্রতিযোগিতার বিষয় ছিল ‘মেয়েদের ক্ষমতায়ন নিশ্চিতে পরিবারই মুখ্য ভূমিকা পালন করে।’ রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজ, নটর ডেম কলেজ, সেন্ট যোসেফ হায়ার সেকেন্ডারি স্কুল ও হলিক্রস স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা এতে অংশ নেয়।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের ডেপুটি চিফ অব মিশন জোয়ান ওয়াগনার, ইউএসএইড বাংলাদেশ মিশনের পরিচালক ডেরিক এস ব্রাউন প্রমুখ। বিচারক ছিলেন চলচ্চিত্রকার ও চিত্রনাট্যকার শামীমা আক্তার, বাংলাদেশ ডিবেট ফেডারেশনের মোর্শেদ হাসিব ও ইমাগো স্পোর্টস ম্যানেজমেন্ট লিমিটেডের সহপ্রতিষ্ঠাতা কাজী সাবির। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ইউএসএইডের জেন্ডার উপদেষ্টা মাহমুদা রহমান খান।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে রুবানা হক বলেন, ‘সামনে যে ছেলেরা বা মেয়েরা বসে আছে, তাদের মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই। মানুষ হিসেবে আমরা দাঁড়িয়ে আছি কিনা, এটি জরুরি।’

নারীরাও নারীদের টেনে নামায় মন্তব্য করে তিনি বলেন, “এটা ‘হি ফর শি’ হ্যাশট্যাগ না, এটা ‘শি ফর শি’। নিজে নারী হলে আরেক নারীর জন্য জায়গা করে দাও। পুরুষ হলে আরেকজন মানুষের জন্য জায়গা করে দাও। কেউ সুযোগ দেবে না, ছিনিয়ে আনতে হবে।”

বিজিএমইএ সভাপতি বলেন, এখন জীবনের মূল্য বদলে গেছে। বিত্ত মানুষকে সংজ্ঞায়িত করে না। নিজের শক্তি, ভেতরকার জ্ঞান, প্রতিদিনের পড়ালেখা, নিজের ওপর বিশ্বাস, সমতা, ন্যায়বিচারই মানুষকে সংজ্ঞায়িত করে। শিক্ষার্থীদের এসব

থেকে সরে না যাওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

রুবানা হক বলেন, ফিতা কাটা, বড় ডেস্কে দাঁড়িয়ে কথা বলা, এটা জীবনের লক্ষ্য নয়। বিনয়ী হতে হবে। সবাইকে সমানভাবে দেখতে হবে, বিনয়কে মাথায় রাখতে হবে। একটি সুন্দর আগামী গড়ে তুলতে হবে।

যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের ডেপুটি চিফ অব মিশন জোয়ান ওয়াগনার বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, এই শিক্ষার্থীরাই পরিবর্তন আনবে। বিশ্বকে পরিবর্তন করার সেই শক্তিও আছে এই শিক্ষার্থীদের।

ক্ষমতায়ন প্রসঙ্গে জোয়ান ওয়াগনার বলেন, ক্ষমতা অন্য কোথাও থেকে আসে না, এটা নিজে থেকেই আসে। নিজের ক্ষমতার বিকাশ, উন্নয়ন ও প্রয়োগ ঘটাতে হবে। তিনি বলেন, নারী ও পুরুষের মধ্যে প্রতিযোগিতা নয়, পুরুষরাও নারীদের মিত্র।

বাংলাদেশের উন্নয়নে যুক্তরাষ্ট্র সহযোগী জানিয়ে জোয়ান ওয়াগনার বিভিন্ন ক্ষেত্রে এ দেশে নারীর অর্জনকে তুলে ধরেন। নারী দিবস নিয়ে তিনি বলেন, নিজেদের অধিকার কাজে লাগাতে হবে।

ইউএসএইড বাংলাদেশ মিশনের পরিচালক ডেরিক এস ব্রাউন বলেন, যখন নারীরা ভালো করেন, তখন পরিবার, সমাজ ভালো করে। অর্থাৎ নারীরা ভালো করলে সবাই ভালো করে।

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বৃষ্টির পানি সংরক্ষণ করে দৃষ্টান্ত স্থাপন

এম. আর. লিটন : দেশজুড়ে যখন বিশুদ্ধ পানি সংকট ও পানি সমস্যা ...