ডেস্ক রিপোর্ট : : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে পূর্বশত্রুতা ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা হয়েছে।

শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাতে হাজী আলাউদ্দিন গ্রুপের নিহত সমর আলীর ভাই আব্দুল আলী ও লিটন গ্রুপের আহত সাদেকুর রহমানের স্ত্রী শেফালী বেগম বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় পাল্টাপাল্টি মামলা দুটি দায়ের করেন।

নিহত সমর আলীর ভাই আব্দুল আলীর দায়ের করা মামলায় লিটনসহ ১৭ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরো ১৬ জনকে আসামি করা হয়। অপরদিকে আহত সাদেকুর রহমানের স্ত্রী শেফালী বেগমের দায়ের করা মামলায় হাজী আলাউদ্দিনসহ ১০ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরো ১৫ জনকে আসামি করা হয়। তবে পুলিশ এখন পর্যন্ত দুটি মামলার কোন আসামিকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

সোনারগাঁও থানার ওসি রফিকুল ইসলাম সময় নিউজকে জানান, সংঘর্ষের ঘটনার পর এলাকা ফাঁকা হয়ে গেছে। জড়িতরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। তিনি বলেন, আসামিদের গ্রেফতারে বিভিন্ন স্থানে পুলিশের অভিযান চলছে। দ্রুত দুটি মামলার আসামিদের আইনের আওতায় আনা হবে।

জানা গেছে, পূর্বশত্রুতা ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে গত ২০ ফেব্রুয়ারি সকালে জেলার সোনারগাঁও উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের নয়াগাঁও গ্রামে হাজী আলাউদ্দিন ও লিটন গ্রুপের সমর্থকদের মধ্যে দফায় দফায় ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। উভয়পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র ও লাঠি নিয়ে হামলা এবং সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে স্থানীয় ব্যবসায়ী সমর আলী নিহত হন। আহত হন দুপক্ষের কমপক্ষে ২৫ জন।

আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ঢাকা মেডিকেলসহ বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। সংঘর্ষের ঘটনায় উভয়পক্ষের লোকজনের বাড়ি ঘর, দোকানপাটে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ উঠে। ঘটনার দিন পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুজনকে আটক করে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here