নানিয়ারচরে সরকার সমর্থক ২ শতাধিক নেতা কর্মীর বিএনপিতে যোগদান

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির মাধ্যমে পার্বত্যাঞ্চলের প্রানি-ক জনগোষ্ঠীর সুষম উন্নয়নে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার হাতকে শক্তিশালী করে সরকার গঠনে সকলের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের বিকল্প নেই। বর্তমান সরকার গণতন্ত্রে বিশ্বাস করেনা, গণতন্ত্রের লেবাসে তারা বিশ্বাস করে স্বৈরতন্ত্রে। এটা অনুধাবন করে দেশের আপামর জনসাধারণ এখন বাংলাদেশ জাতীয়তাদীদলের পতাকাতলে দলে দলে সমবেত হচ্ছে। সোমবার নানিয়ারচরের বুড়িঘাট ইউনিয়নের মাদ্রাসা মাঠে আয়োজিত কর্মীসভা ও যোগদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙামাটি জেলা বিএনপির সভাপতি এডভোকেট দীপেন দেওয়ান এসব কথা বলেন।
নানিয়ারচর থানা বিএনপির সভাপতি এজাজ নবি রেজার উপস্থাপনায় বুড়িঘাট বিএনপি ও অংগ সংগঠন কর্তৃক আয়োজিত কর্মিসভা ও যোগদান অনুষ্ঠানে নানিয়ারচর উপজেলা আওয়ামীলীগ, জাতীয়পার্টি ও স্থানীয় রাজনৈতিক দলের প্রায় দুই শতাধিক নেতা-কর্মী বিএনপিতে যোগদান করে। থানা আওয়ামীগ নেতা মোঃ রুস-ম ও জাতীয় পার্টির নানিয়ারচর থানার যুগ্ম সম্পাদক আলমগীরের নেতৃত্বে এত বিপুল সংখ্যক সরকার দলীয় নেতাকর্মী যোগদান করে। আয়োজিত যোগদান অনূষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আলহাজ্ব জহির আহাম্মদ সওদাগর, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহ আলম, জেলা বিএনপির ত্রাণ ও পুর্ণবাসন বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল মান্নান। এসময় উপসি’ত ছিলেন জেলা মৎস্যজীবি দলের সাধারণ সম্পাদক শ্বাশত চাকমা রিংকু, উপজাতীয় ঠিকাদার সমিতি সভাপতি মানস মুকুর চাকমা, জেলা যুবদলের সহ সাধারণ সম্পাদক আব্দুস শুক্কুর, যুবদলের অর্থসম্পাদক মোঃ মোস-ফা, কাউখালি থানা বিএনপির সভাপতি সাজাই মং, ব্যবসায়ি নেতা প্রগতি চাকমা, নানিয়ার চর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান ও সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ নুরুজ্জামান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব্ব করেন বুড়িঘাট ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মোঃ খোরশেদ আলম।
যোগদান অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহ আলম রাঙামাটি জেলা পরিষদের সমলোচনা করে বলেন, কোটি কোটি টাকার খাদ্য শস্য বরাদ্দ পেয়ে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান দলীয় কর্মীদের মোটাতাজা করণ কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। পরিষদের চেয়ারম্যানের সমালোচনা করে তিনি বলেন সাড়ে তিন কোটি টাকা ব্যয়ে শেখ মুজিবের ম্যুরাল বানানো হচ্ছে তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন এতে করে পার্বত্য এলাকার প্রানি-ক জনগোষ্ঠীর কি লাভ হচ্ছে।
জেলা বিএনপির সহ সভাপতি আলহাজ্ব জহির আহাম্মদ সওদাগর বলেন প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে রাঙামাটি জেলা পরিষদ দুর্নীতির অন্যতম নজির স্থাপন করেছে উল্লেখ করে বলেন, যোগ্যতার ভিত্তিতে কেউ চাকরি পায়নি, যারা চাকরি পেয়েছে তারা প্রতিজনে পাচঁ লক্ষ টাকা প্রধান করে তার পর চাকরি করছে। তিনি দাবি করেন‘ চাকুরি দাতা আওয়ামীলীগ নেতারা যেসব চাকুরি প্রার্থী নগদ টাকা দিতে পারেনি তাদের কাছ থেকে সেগুন গাছের বাগান ও ফসলি জমি লিখে নিয়েছে।
অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, বিগত সংসদ নির্বাচনে দুই তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করলেও আওয়ামী লীগ সরকার জনগণের মতামতের প্রতি মোটেও শ্রদ্ধাশীল নয়। তাদের মতে, জনমতের তোয়াক্কা না করে ফ্যাসিস্ট কায়দায় জোর-জবরদসি-মূলকভাবে নিজেদের কায়েমী স্বার্থ রক্ষার্থে বিভিন্ন আইন বিধি প্রণয়ন করছে। বক্তারা আরো বলেন, জনগণের ভোটে আওয়ামীলীগ বিশ্বাসী নয় বলে তারা তত্বাবধায়ক ব্যবস’া বাতিল করেছে। আগামীতে ক্ষমতায় আসতে পারবে না জেনে এ সরকার দলীয় অধীনে নির্বাচন দিয়ে আবারো রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় যাওয়ার দুঃস্বপ্ন দেখছে। কিন’ দেশের মানুষ আওয়ামীলীগের স্বপ্ন পুরন হতে দিবে না। আন্দোলনের মাধ্যমে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বহাল রাখতে হবে। আওয়ামীলীগ সরকার তার অতীত স্বভাব অনুযায়ী আবারো বাকশাল কায়েমের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। নিজেদের ক্ষমতার লোভে এ সরকার দেশের সকল স্বার্থ ভারতের হাতে তুলে দেয়ার ব্যবস’া করেছে। এসব বিষয়ে প্রতিবাদ আন্দোলন ঠেকাতে তারা বিরোধী দলকে দমন নিপিড়ন করে নিশ্চিহ্ন করে দিতে চায়। কিন’ বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা জিয়াউর রহমানের আদর্শের বিএনপির কর্মীরা কখনো আওয়ামীলীগের বাকশাল বাস-বায়ন হতে দিবে না। বক্তারা খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে জালিম এ সরকারের পতন আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়ার আহবান জানান। অনুষ্ঠানে যোগদান করা নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করে বলেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নানিয়ারচরের হেডম্যান হওয়া সত্ত্বেও নানিয়ারচরবাসী পরিষদ থেকে ন্যুনতম সাহায্য পায়নি।

ইউনাইটেড নিউজ ২৪ ডট কম/আলমগীর মানিক/রাঙ্গামাটি

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কাউন্সিল: তৃনমূলে আলোচনায় সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী শাহ নাওয়াজ

আশরাফ উদ্দিন প্রান্ত :: আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর বিএনপির  ভ্যানগার্ড হিসাবে পরিচিত জাতীয়তাবাদী ...