ব্রেকিং নিউজ

নবীনদের বরণ করল গ্রিন ইউনিভার্সিটির সাংবাদিকতা বিভাগ

স্টাফ রিপোর্টার :: বর্ণাঢ্য আয়োজনে গ্রিন ইউনিভার্সিটির ‘সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম যোগাযোগ’ বিভাগের স্প্রিং ব্যাচের নবীন বরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১৭ই ফেব্রুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের শেওড়াপাড়াস্থ সিটি ক্যাম্পাসের সেমিনার হলে এই অনুষ্ঠানে আয়োজন করা হয়।

বিভাগীয় চেয়ারপার্সন ড. অলিউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. গোলাম সামদানী ফকির প্রধান এবং বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশন জিটিভি ও সারাবাংলা ডট নেট পত্রিকার প্রধান সম্পাদক সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা ‘গেস্ট অব অনার’ হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. গোলাম সামদানী ফকির বলেন, সাংবাদিকতা নিঃসন্দেহে চ্যালেঞ্জিং পেশা। তবে এর ভেতরেও সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জটি হলো নৈতিকতা রক্ষা করা। সাংবাদিকরা হলেন সমাজের চোখ, তাদের মাধ্যমেই দেশ এমনকি গোটা বিশ্ব সব ধরণের পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে পারে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা বলেন, গত দুই দশক ধরে সাংবাদিকতায় বড় ধরণের পরিবর্তন এসেছে। এটা শুধু বাংলাদেশে নয়, গোটা বিশ্ব। যুক্তরাষ্ট্রের সাংবাদিকতাকে যেখানে আদর্শ মনে করা হত, সেখানেও আজ নানামুখী চ্যালেঞ্জ। কথায় কথায় সে দেশের প্রেসিডেন্ট আজ সাংবাদিকদের গালি দেন। তিনি বলেন, সমাজ ও রাষ্ট্রের সব স্তরে ঘুণ ধরলে সাংবাদিকতায় কেন নয়? তবে আমাদের পরিবর্তনের জন্য কাজ করতে হবে। এ সময় তিনি ইউএন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, ওয়ার্ল্ড ব্যাংকে চাকরি করার পরও সাংবাদিকতায় ফিরে আসার গল্প শেয়ার করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, শিক্ষার্থীদের শুধু একাডেমিক জ্ঞান অর্জন করলে চলবে না; একই সঙ্গে তাকে নৈতিকবোধসম্পন্ন ও সমাজের প্রতি দায়বদ্ধ হতে হবে। তিনি বলেন, গ্রিন ইউনিভার্সিটি সব সময়ই মানসম্মত শিক্ষাদানে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। এখানকার সিলেবাস যেমন আধুনিক, তেমনি শিক্ষকরাও প্রশিক্ষিত। কেননা গ্রিন বিশ^বিদ্যালয়ে যোগদানের পরই একজন শিক্ষককে চার মাসব্যাপী প্রশিক্ষণ নিতে হয়। সমাজ ও রাষ্ট্রকে সেবা দিতে শিক্ষার্থীদের সত্যিকারের জ্ঞানার্জনের ওপরও গুরুত্বারোপ করেন কোষাধ্যক্ষ ও ছাত্রবিষয়ক পরিচালক মো. শহীদ উল্লাহ।

নবীন বরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. গোলাম আহমেদ ফারুকী প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বিভাগের শিক্ষক জাকিয়া জাহান মুক্তা

এছাড়াও নবীন বরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জিইউবির বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যানবৃন্দ পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর এস এম. কে নাজমুল হক, শাখা প্রধানগণ এবং বিভিন্ন অনুষদের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীগণ। পরে একই ভেন্যুতে একটি মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

করোনায় দেশে আরও একজনের মৃত্যু: নতুন শনাক্ত ৩

স্টাফ রিপোর্টার :: দেশে নভেল করোনাভাইরাসে রোগে আক্রান্ত হয়ে আরও একজনের মৃত্যু ...