শিপুফরাজী, চরফ্যাশন প্রতিনিধি :: জলবায়ু পরিবর্তনের ভুক্তভোগী চরফ্যাশনের উপকূলবর্তী এলাকা কুকরি মুকরি ইউনিয়নের মানুষের কল্যাণে অবহেলিত বিচ্ছিন্ন দ্বীপ চর পাতিলায় সুবিধাবঞ্চিত মানুষের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্য সেবা পৌঁছে দিতে ও জীবন মানের উন্নয়ন করার লক্ষ্যে ৭ এপিল ২০১৮ ‘চর পাতিলা স্বাস্থ্য সেবা ও নারী উন্নয়ন কেন্দ্র’ স্থাপন করা হয়েছে। স্বাস্থ্যসেবা যেখানকার মানুষের কাছে ছিল স্বপ্ন, সেই অবহেলিত দ্বীপে এখন আলোকবর্তিকা হিসেবে বতমানে কাজ করছে এই স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র।

শনিবার উক্ত প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেন প্রকল্পের সহযোগী সংগঠন এমআরডিআই, ঢাকা এর নির্বাহী পরিচালক হাসিবুর রহমান মুকুর, উন্নয়ন ধারা ট্রাস্টের পরিচালক অধ্যক্ষ মনির আহমেদ শুভ্র, এমআরডিআই’র সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার এইচ আর এডমিন মিজানুর রহমান, সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার নাদিয়া সারওয়ার ও প্রকল্প ফিল্ড কো-অর্ডিনেটর আমিনুল ইসলাম।

চর পাতিলা স্বাস্থ্যসেবা ও নারী উন্নযন কেন্দ্রের বিভিন্ন কর্মসূচি পরিদর্শন শেষে এমআরডিআই এর নির্বাহী পরিচালক হাসিবুর রহমান মুকুর জানান, স্বাস্থ্য সেবা যেখানকার মানুষের জন্য ছিলো স্বপ্ন। সেই অবহেলিত দ্বীপে এখন আলোকবর্তীকা হিসাবে কাজ করবে এই স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র। এত দিন এই চরের মানুষ বিনা চিকিৎসায় মারা যেত। চিকিৎসাসেবা পেতে হলে চর থেকে উপজেলায় যেত হতো।

২০১৮ সালে প্রায় ১ কোটি ৭১ লাখ টাকা ব্যয়ে এ প্রকল্পটি মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক এর অর্থায়নে উন্নয়ন তহবিলের বিকল্প হিসাবে সিএসআর তহবিল ব্যবহারের মাধ্যমে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন এবং দারিদ্র বিমোচনের লক্ষ্যে এটি এমআরডিআই এবং এমটিবির একটি যৌথ উদ্যোগ। চর পাতিলার সুবিধাবঞ্চিত মানুষের স্বাস্থ্যসেবা ও জীবনমান উন্নয়নে এমন উদ্যোগ গ্রহণের জন্য এমটিবি এবং এমআরডিআইকে অভিনন্দন জানান।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here