ডেস্ক রিপোর্ট :: ওয়ার্কশপে কাজ করার সময় রাজধানীর তেজগাঁওয়ে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় সাতজন দগ্ধ হয়েছেন।

শনিবার (১৬ জানুয়ারি) বিকাল ৪টার দিকে তেজগাঁওয়ের গুলশান লিংক রোড এলাকায় একটি গাড়ির ওয়ার্কশপে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। অগ্নিদগ্ধদের শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

দগ্ধ সাতজন হলেন- ওয়ার্কশপের জুনিয়র ইঞ্জিনিয়ার সাকিবুল ইসলাম শিমুল (২৫), কর্মচারী জুয়েল (৩২), রবিউল ইসলাম (২৪), সুনাম (২০) ও প্রাইভেট কার চালক আলী আকবর (৫০), হায়দার আলী (২২), রুবেল হাওলাদার (২৭)।

ম্যাপেলিফ ইন্টারন্যাশনাল ওয়ার্কশপটির সার্ভিসিং ম্যানেজার হাবিবুর রহমান জানান, দুপুরে ওয়ার্কশপে একটি প্রাইভেট কারে কাজ করছিলেন কর্মচারীরা। আশপাশে আরও কিছু গাড়ির কাজও চলছিল। তখন ওই প্রাইভেট কারের ইঞ্জিন ওভার হিট হয়ে গাড়ির ভেতরে থাকা পেপার ও পলিথিনে আগুন লেগে যায়। মুহূর্তে সে আগুন চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। এতে গাড়িটির আশপাশে থাকা কর্মচারী ও অন্যান্য চালকরা দগ্ধ হন। পরে দ্রুত দগ্ধদের উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

এ দিকে দগ্ধ রুবেলের বরাতে সহকর্মী শেখ আশরাফ জানান, তারা একই কোম্পানির গাড়ি চালান। রুবেল গাড়ি নিয়ে ওই ওয়ার্কশপে কাজ করাতে যান। ওয়ার্কশপে ওই সময় আরেকটি প্রাইভেট কারেরও কাজ করছিলেন কর্মচারীরা। তখন ওই প্রাইভেট কারের সিলিন্ডারের লিকেজ থেকে আগুন ধরে যায়। এতে তারা দগ্ধ হন।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে দায়িত্বরত চিকিৎসক জানান, আলী আকবরের ২০ শতাংশ, রবিউলের ১৪ শতাংশ, জুয়েলের ১৮ শতাংশ ও রুবেলের শরীরের ১৪ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। বাকি তিনজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

এ দিকে, ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তরের ডিউটি অফিসার মো. রাসেল শিকদার জানান, আগুন লাগার খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here