জামান সরকার, হেলসিঙ্কি থেকে ::

একটি নতুন বছরনতুন সম্ভাবনা। মাইনাস ১৬ ডিগ্রি তাপমাত্রায় তীব্র ঠাণ্ডা ও তুষার উপেক্ষা করে ফিনল্যান্ডে বসবাসরত বাংলাদেশিরা ঢাকঢোলআতশবাজি এবং আর হৈহুল্লোড়ের উল্লাসে একে অপরকে “হুভা উত্তা ভূয়াত্তা (ফিনিশ ভাষায় শুভ নববর্ষসম্বোধন করে ইংরেজি নববর্ষকে স্বাগত জানায়।

লাখো শহীদের রক্তস্নাতে গৌরবমণ্ডিত আমাদের প্রিয় জন্মভূমি বাংলাদেশ। বীর বাঙালি কোনও দিন পরাজয় মানে না। পাশাপাশি বাঙালি আনন্দও করতে জানে। আর তাই ইংরেজী নববর্ষের দিনে ফিনল্যান্ডে প্রবাসী বাংলাদেশিরা সবাই মিলে ফিনল্যান্ডের রাজধানী হেলসিংকিতে উদযাপন করল নববর্ষের এই দিনটি। রাত ১২টা বাজার সঙ্গে সঙ্গেই উৎসবে মুখরিত হয়ে উঠে হেলসিংকির চত্বর।

রাজধানী ডাউন টাউনের কাউপ্পাতরীর গোলচত্বরে প্রবাসীরা আতশবাজি করে হইচই উল্লাস করে স্বাগত জানালো নতুন বছরকে। ধর্ম-বর্ণ ও দলমত নির্বিশেষে আনন্দে ভাসলো সবাই।

সে সময় হেলসিংকিতে বসবাসরত  দবির হোসেন বলেননববর্ষ বাঙালির সার্বজনীন উৎসব আর এই উৎসবে বাঙালি তার দীর্ঘকালের সংস্কৃতি তুলে ধরছে। আর এটাই বাঙালির স্বকীয়তা। 

প্রবাসী  রকিবুল ইসলাম রুবেল বলেনআমাদের বাংলাদেশের গ্রামীণ আর্থ-সামাজিক সাংস্কৃতিক পরিসরে আমরা নববর্ষ পালন করছি।

হেলসিংকিতে বসবাসরত সাব্বির আহমেদ লস্কর পুরনো বছরের গ্লাণিঅশুচি দূর করে নতুন বছরে সবাইকে স্বমহিমায় বিকশিত হওয়ার আহবান জানান।

 

ইংরেজি বছরের প্রথমদিন বলে উদযাপনে ভিনদেশি বৈচিত্র উল্লেখ করে  বাংলাদেশি প্রবাসী ইমু খান বলেনরাত পোহালে নতুন সূর্য্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে শুরু হবে নতুন ভাবনা। আর এই ভাবনাটাকে স্মরণীয় করে রাখতেই বন্ধুরা এক সঙ্গে জড়ো হয়েছি।

থার্টিফার্স্ট উপলক্ষে বুধবার সন্ধ্যা থেকেই জমতে শুরু করে হেলসিংকির গোলচত্বরসহ ভিন্ন এলাকা। নানা খাবারের আয়োজনে রেস্টুরেন্টগুলোও ছিল জমজমাট।

নববর্ষ উপলক্ষে থার্টি ফাষ্ট নাইটে হেলসিংকির একটি রেস্তোঁরায় এক চা-চক্রের আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন, কামরুল হাসান জনি, মো এনামুল হক শিপু, জুলফিকার আশরাফ সাগর. মহিউদ্দিন আহমেদ মানিক, জহিরুল ইসলাম নজরুল, মো: জাহাংগীর আলম, আনিসুর রহমান ছোট, মো আব্দুর রশিদ, গাজী সামসুল আলমআলাউদ্দিন মোহাম্মদ, শামীম বেপারী, তানভীর রশিদ ও জামান সরকার।

এই চা চক্রে উপস্থিত বাংলাদেশি প্রবাসীরা বলেন ‘‘আমরা আশায় বুক বেঁধে আছি নতুন বছর আমাদের সবার জন্য বয়ে আনবে অনাবিল সুখ শান্তি ও আনন্দ। আমাদের পৃথিবীতে আবারও ফিরে আসবে সোনালী দিন’’।

২০২৪ সবার জন্য মঙ্গল বয়ে আনবে এমনটাই তাদের সবার প্রত্যাশা। তারা ফিনল্যান্ড প্রবাসী বাংলাদেশি পরিবারের সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here