তিতুমীর কলেজ প্রতিনিধি:: সরকারি তিতুমীর কলেজে উদ্বোধনের মাধ্যমে শুরু হলো তথ্য প্রযুক্তি নিয়ে দেশে প্রথমবারের মত অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া আইসিটি অলিম্পিয়াডের বুথ কার্যক্রম। দেশের সব অঞ্চলের শিক্ষার্থীরা যাতে অংশগ্রহণ করতে পারে সেই লক্ষ্যে দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বসবে আইসিটি অলিম্পিয়াড বাংলাদেশের রেজিস্ট্রেশন বুথ। এ উপলক্ষ্যে তিতুমীর কলেজে আইসিটি অলিম্পিয়াডের ক্যাম্পাস ফেস্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে।

<span;>সোমবার (১ আগস্ট) তিতুমীর কলেজের শহীদ বরকত মিলনায়তনে এই ক্যাম্পাস ফেস্ট অনুষ্ঠিত হয়। এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সরকারি তিতুমীর কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক মোঃ মহিউদ্দিন। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক প্রফেসর এএসএম আসাদুজ্জামান, আইসিটি ডিপার্টমেন্টের কোঅরডিনেটর ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের প্রধান সহযোগী অধ্যাপক মোঃ সালাউদ্দিন। এছাড়াও অতিথি হিসেবে ছিলেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ রিপন মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হক জুয়েল মোড়ল।

<span;>অনুষ্ঠানে স্পিকার হিসেবে ছিলেন ক্রিয়েটিভ বিজনেস গ্রুপের হেড অফ ব্রান্ড এন্ড মার্কেটিং আশরাফুল ইনসান ইভান, আইসিটি অলিম্পিয়াডের গভর্নিং বডির সদস্য মোহাম্মদ শাহরিয়ার খান ও আরেফিন দিপু, প্রজেক্ট ডিরেক্টর সোহাগ মিয়া, কনভেনার শামিমা বিনতে জলিল।

<span;>প্রধান অতিথির বক্তব্যে সরকারি তিতুমীর কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক মোঃ মহিউদ্দিন বলেন, তথ্য প্রযুক্তিতে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তোমরা সকলে আইসিটি অলিম্পিয়াডের সাথে যুক্ত হও, তথ্য প্রযুক্তি সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন করো। আইসিটি অলিম্পিয়াডের জন্য শুভকামনা রইলো।

<span;>বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আইসিটি ডিপার্টমেন্টের কোঅরডিনেটর ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের প্রধান সহযোগী অধ্যাপক মোঃ সালাউদ্দিন বলেন, তিতুমীর কলেজ আইটি সোসাইটি গত দেড় বছর ক্যাম্পাসে ও অনলাইনে অনেক কাজ করেছে। সে জন্য আইটি সোসাইটিকে অভিনন্দন। তিনি সকলকে আইসিটি অলিম্পিয়াডে রেজিস্ট্রেশনের আহবান জানান।

<span;>বক্তব্যে ক্রিয়েটিভ বিজনেস গ্রুপের হেড অফ ব্রান্ড এন্ড মার্কেটিং আশরাফুল ইনসান ইভান বলেন, নতুন একটা সুযোগ আসতেছে আমরা সেটা নিবো? শিক্ষার্থী সংখ্যায় দেশের সবচেয়ে বেশি এই তিতুমীর কলেজ আইসিটি অলিম্পিয়াডে চ্যাম্পিয়ান হবে কিনা জানিনা, কিন্তু বেশিরভাগ শিক্ষার্থী এই সুযোগটা কাজে লাগাক। তরুণদের ডেভলপ করতে হলে আমি শুধুমাত্র সুযোগ তৈরি করে দিতে পারি। হাল তোমাদেরই ধরতে হবে।

<span;>আইসিটি অলিম্পিয়াডের তিতুমীর কলেজ টিমের কো-লিডার ও আইটি সোসাইটি মানবসম্পদ সম্পাদক আশিক রঞ্জন দাস বলেন, বাংলাদেশে অনেক ধরনের অলিম্পিয়াড হয়ে থাকে। তবে এই প্রথম একটু ভিন্ন ধরনের অলিম্পিয়াড হচ্ছে আইসিটি অলিম্পিয়াড।  এর মাধ্যমে বাংলাদেশের প্রত্যেকটা কোণে আইটি সম্পর্কিত বিষয়গুলো ছড়িয়ে যাবে। আমরা কিছুদিন পর ৫ম শিল্পবিপ্লব এ  উন্নীত হবো। এখনি সময় আমাদের তরুণদের নিজের যোগ্যতা কাজে লাগিয়ে বিশ্বের দরবারে উপস্থাপন করা।তাই আইসিটি অলিম্পিয়াড এর উপলক্ষে শুরু হলো ক্যাম্পাস ফেস্ট। আর প্রথম ক্যাম্পাস ফেস্ট হলো তিতুমির কলেজে। এই ক্যাম্পাস ফেস্টে উপস্থিত সকল অতিথিকে ধন্যবাদ জানাই। আজকের ফেস্টে আইসিটি অলিম্পিয়াড তিতুমীর কলেজের টিম ছাড়াও ঢাবি অধিভুক্ত সাত কলেজের টিমও ও চাঁদপুর জেলা টিম আমাদের সাথে আছে। তাদের ধন্যবাদ জানাই। এছাড়াও ধন্যবাদ জানাই আইটি সোসাইটির সকল মেম্বার কে, যাদের কারণে আজকের অনুষ্ঠান সহজ হয়ে উঠেছে। লোডশেডিং এর কারণে আমাদের প্রোগ্রামে কিছু সমস্যা হয়েছিল। কিন্তু আমরা থেমে থাকেনি । আমাদের ক্লাব থেমে থাকেনি । সকলের কাছেই ছিল একটা উৎসাহ, যার দরুনে আমরা আজকে সফল হলাম। আগামী ২ থেকে ৪ তারিখ তিতুমীর কলেজ ক্যাম্পাসে আইসিটি অলিম্পিয়াড এর বুথ বসবে। আশা করি ক্যাম্পাসের সকলে রেজিস্ট্রেশন করবে। পরিশেষে একটাই কথা, তিতুমীর কলেজ টিম হলো একটা ডাইনামিক টিম, তারা সকল সমস্যার মধ্যেও সব কিছু করতে পারে। তিতুমীর এর তরুণ-তরুণীরা হলো একদল উদ্যামী তরুণ-তরুণী।

<span;>উল্লেখ্য, স্কুল থেকে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা ছয়টি ক্যাটাগরিতে অংশ নিতে পারবেন। প্রতিযোগীদের জন্য প্রাইজমানি থাকছে ৫০ লাখ টাকা। প্রতিযোগিতায় রেজিস্ট্রেশনের পর থেকে ৫ মাস শিক্ষার্থীরা মেন্টরদের মাধ্যমে নিজেদের আইসিটি জ্ঞানকে ঝালিয়ে নেওয়ার সুযোগ পাবে।

<span;>অনলাইনে http://www.ictolympiadbangladesh.com এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ক্যাটাগরি অনুসারে রেজিস্ট্রেশন করা যাবে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here