ইউনাইটেড নিউজ ২৪ ডেস্ক :: জাতিসংঘ তালেবানের অধীনে নারীদের অধিকার নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। কারণ তালেবান ইতোমধ্যে নারীদের অধিকার বিষয়ক তাদের অঙ্গীকার নিয়ে অবহেলা শুরু করেছে।

আফগানিস্তানে নারী বিষয়ক জাতিসংঘ প্রতিনিধি এলিসন দেভিদিয়ান বুধবার বলেছেন, তালেবান নারী অধিকার নিয়ে বারবার একই বিবৃতি দিচ্ছে। তারা বলছে, ইসলামের আলোকে তারা নারীদের সম্মান জানাবে। কিন্তু প্রতিদিনই আমরা নারী অধিকার নিয়ে উল্টো খবর পাচ্ছি।

নিউইয়র্কে সাংবাদিকদের সাথে এক ভিডিও কনফারেন্সে এলিসন আরো বলেন, উদাহরণ হিসেবে বলা যায় পুরুষ সঙ্গী ছাড়া নারীদের ঘরের বাইরে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। এমনকি কিছু প্রদেশে নারীদের কাজে যাওয়াও বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।
এদিকে তালেবান মঙ্গলবার যে সরকারের ঘোষণা দিয়েছে সেখানে কোন নারীকে রাখা হয়নি।

এ প্রেক্ষিতে এলিসন বলেন, তাদের এ সরকারের ঘোষণায় তারা যে সত্যিকার অর্থে ব্যাপক ভিত্তিক ও সমৃদ্ধ সমাজ গড়তে অঙ্গীকারবদ্ধ তা দেখানোর গুরুত্বপূর্ণ সুযোগ মিস করেছে।

উল্লেখ্য, তালেবান ১৯৯৬ থেকে ২০০১ পর্যন্ত তাদের শাসনামলে নারী অধিকারে কঠোর বিধি নিষেধ আরোপ করে।
বর্তমানে অধিকাংশ নারী ও নারী অধিকারকর্মী তালেবানের পূর্বনীতি বাস্তবায়নেরই আশংকা করছে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here