ঢেউয়ের ওপর উড়তে পারে পৃথিবীর প্রথম ফ্লায়িং বোট ট্যাক্সি

ডেস্ক রিপোর্টঃঃ  ইলেকট্রিক কার অথবা স্কুটারের কথা তো সবার জানা। সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ইলেকট্রিক প্লেন এবং এয়ার ট্যাক্সির কনসেপ্ট সামনে চলে এসেছে। স্টকহোমের একটি কোম্পানি এক্ষেত্রে এগিয়ে আছে। তারা পৃথিবীর প্রথম ইলেকট্রিক ফ্লায়িং বোট ট্যাক্সি তৈরি করেছে, যা পানির ওপর দিয়ে হাওয়ার সঙ্গে সখ্য রেখে উড়ে বেড়ায়। চলুন জেনে নিই, এটি কেমন এবং কীভাবে কাজ করে।

ক্যান্ডেলা তৈরি করেছে পিএই ভয়েজার। স্টকহোমের কোম্পানি ক্যান্ডেলা পৃথিবীর প্রথম ইলেকট্রিক ফ্লাইং বোট ট্যাক্সি পেশ করেছে। এটি hydro-electric সিস্টেমের কাজ করবে এবং পানির স্তর থেকে উপরে হাওয়াতেও উড়ে যেতে পারবে। এই বোটের নিচে প্রপালশন মোটর লাগানো থাকে। পানির ভেতরে ডুবে থাকে এটি। দুটি মোটর বোটটিকে এগিয়ে নিতে সাহায্য করে এবং ৫০ কিলোওয়াটের পাওয়ার জেনারেট করে।

ইলেকট্রিক লাইন ট্যাক্সি বোর্ড লম্বা দূরত্ব পর্যন্ত সফল করার জন্য তৈরি করা হয়েছে। সিঙ্গেল চার্জে ৪০ নটিক্যাল মাইল পর্যন্ত যায়। যার মধ্যে ১৬ জন বসে যাত্রা করতে পারে। অনবোর্ড লাইট কন্ট্রোলার লাগানো রয়েছে। যাতে এই বোটের গতি ১৬ নটস পার করা যায়। এর মধ্যে লাগানো থাকা কন্ট্রোলার অটোমেটিক বোটটিকে উপরে উঠতে সাহায্য করে এবং এটি ঢেউ এলে ঢেউয়ের উপরে উঠে যেতে পারে। আবার ঢেউ পার হয়ে গেলে সেটি আরামে নিচে নেমে যায়।

এই ট্যাক্সির সবচেয়ে বড় বিষয় হলো এটি চলার সময় কোনো রকম আওয়াজ বা শব্দ করবে না। সঙ্গে এটি নিজের পেছনে কোনোরকম দূষণ ছড়িয়ে যাবে না। অর্থাৎ যদি সমুদ্রে এবং নদীতে এই বোট ব্যবহার করা হয়, তাহলে এটি জলজ প্রাণীদের কোনোরকম প্রভাবিত করবে না।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here