ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা শুরু বৃহস্পতিবার

ডেস্ক রিপোর্টঃঃ  রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বসতে যাচ্ছে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা’। ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের আয়োজনে আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) থেকে পরবর্তী তিনদিন এ মেলা অনুষ্ঠিত হবে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মেলার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলেন এসব তথ্য জানান ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

দ্বিতীয় বার অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলার টাইটেনিয়াম স্পন্সর ‘হুয়াওয়ে’। ডায়মন্ড স্পন্সর ‘জেডটিই’ এবং সহযোগী হিসেবে আছে ‘আইএসপিএবি’।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের ফাইভজি, রোবটিক্স, ট্রিপল প্লে ও প্যারেন্টাল কন্ট্রোলের মতো নানা আয়োজন নিয়ে স্মার্ট বাংলাদেশের সংযুক্তির মহাসড়কের সঙ্গে ব্যবহারকারীদের পরিচয় করিয়ে দিতেই এই মেলার আয়োজন। মেলায় ডিজিটাল বাংলাদেশের প্রাযুক্তিক সক্ষমতা ও স্মার্ট বাংলাদেশ যাত্রার প্রস্তুতির হালচিত্র উপস্থাপনের পাশাপাশি তরুণ উদ্ভাবকদের এআই, আইওটি, রোবটিক্স, বিগডেটা ও ব্লকচেইন প্রযুক্তির নানা উদ্ভাবন তুলে ধরবে ডাক ও টেলিযোগযোগ বিভাগ ও এর অংশীজনরা।

তিনি বলেন, সবার জন্য উন্মুক্ত মেলায় থাকছে ৫২টি প্যাভিলিয়ন ও ৫৭টি স্টল। প্রদর্শনীর পাশাপাশি থাকছে আটটি সেমিনার। মেলার দ্বিতীয়দিন অনুষ্ঠিত হবে জাতীয় পর্যায়ের প্রথম মোবাইল কংগ্রেস। নারী ও শিশুদের জন্য মেলায় থাকছে বিশেষ আয়োজন। ভিআর চশমা পড়ে মেলা থেকেই দর্শনার্থীরা ঢুঁ দিতে পারবেন বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে।

সাংবাদিকদের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, শিল্পের পাশাপাশি ব্যক্তি পর্যায়ে ফাইভজি প্রযুক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে জীবনমানের উন্নয়ন ও সুবিধার বিষয়ে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে হবে। এই মেলা থেকেই প্রচলন করা হবে ডাক ও টেলিযোগাযোগ পদক। ১৪ ক্যাটাগরিতে ২২ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে দেওয়া হবে সম্মাননা পদক।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, এই মেলার টার্গেট তরুণরা। এটাই হবে শেষ ডিজিটাল মেলা। ডিজিটাল বাংলাদেশের শক্ত ভিত্তির ওপরেই আমরা স্মার্ট বাংলাদেশের রূপান্তরের দিকে এগিয়ে যাব। যেখানে চারটি বিষয়কে গুরুত্ব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। এগুলো হলো—স্মার্ট নাগরিক, স্মার্ট অর্থনীতি, স্মার্ট সরকার এবং স্মার্ট সমাজ।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব আবু হেনা মোর্শেদ জামান, অতিরিক্ত সচিব মাহবুবুল আলম, বিটিআরসি ভাইস চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদ এবং আইএসপিএবি সভাপতি ইমদাদুল হক।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here