ডেস্ক রিপোর্ট::  গণঅধিকার পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো. রাশেদ খাঁন বলেছেন, ডামি সরকারের বিরুদ্ধে ডামি আন্দোলন করে সরকারের পতন ঘটানো যাবে না। সরকারের বিরুদ্ধে আমাদের শক্ত আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

রোববার প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ কর্তৃক আয়োজিত এক মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ১৯৯০ সালে সমস্ত রাজনৈতিক দল যুগপৎ আন্দোলন করেছে। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ-জামায়াত-জাতীয় পার্টি যুগপৎ আন্দোলন করে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি আদায় করেছে। কিন্তু নির্বাচনের আগে দলগুলোর মধ্যে মতপার্থক্য দলগুলোকে এককাতারে আনতে পারেনি। এখনো পর্যন্ত যদি আমরা বিভেদ ভুলে রাজপথে একতাবদ্ধ হয়ে নামতে না পারি, তাহলে যুগের পর যুগ এই ফ্যাসিবাদ সরকার ক্ষমতায় থেকে যাবে।

রাশেদ খান বলেন, গণঅধিকার পরিষদ তার সক্ষমতা অনুযায়ী গত ২৮ অক্টোবর থেকে ধারাবাহিকভাবে রাজপথে আন্দোলন করে যাচ্ছে। কোটা সংস্কার আন্দোলনের সময় আমরা জাতিকে কথা দিয়েছিলাম, আন্দোলন সফল না হলে ঘরে ফিরে যাব না। ঠিক এখন বলছি, ফ্যাসিবাদ বিরোধী আন্দোলন সফল না হওয়ার আগ পর্যন্ত আমরা রাজপথে আছি।

গণঅধিকার পরিষদের উচ্চতর পরিষদের সদস্য আবু হানিফ বলেন,কারাগারে এক লাখের বেশি মানুষ আটক রয়েছে, আমরা কত জনের মুক্তির দাবিতে রাজপথে নামব? আমাদের এই অবৈধ সরকারকে পতনের আন্দোলন করতে হবে।

গণঅধিকার পরিষদের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাসান আল মামুন বলেন, বর্তমান সময়ে পুলিশি হয়রানির শিকার হচ্ছেন অনেক সাধারণ মানুষ। বিএনপিসহ বিরোধী দলের প্রায় ৩ হাজার নেতাকর্মীকে সাম্প্রতিক সময়ে সাজা দিয়েছেন আদালত, যে মামলাগুলোর বাদী পুলিশ নিজেই। সরকার একটি অবৈধ নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করে রাষ্ট্রীয় সকল প্রতিষ্ঠানকে দেউলিয়া করে দিয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here