ইউনাইটেড নিউজ ২৪ ডেস্ক ::

রাজধানীর গোপীবাগে ট্রেনে দুর্বৃত্তের দেয়া আগুনের ঘটনায় আসিফ মোহাম্মদ খান (৩০) নামে এক যুবক দগ্ধ হয়েছেন। শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন তার শরীরের  ৮ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে বলে জানিয়েছেন জরুরি বিভাগের এক চিকিৎসক। তার স্ত্রী ওই ট্রেনে চোখের সামনেই আগুনে পুড়ে মারা গেছেন। কিন্তু আগুনের লেলিহান শিখার কাছে তার কিছুই করার ছিল না।

শুক্রবার (৫ জানুয়ারি) রাতে এ অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটে। পরে পথচারী মুরাদ হোসেন তাকে উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নিয়ে আসেন।

দগ্ধ আসিফ বলেন, আমারা ভাঙ্গা থেকে ঢাকার কমলাপুর আসার পথে হঠাৎ ট্রেনে আগুন দেখতে পাই। অগ্নিকান্ডে আমার চোখের সামনে আমার স্ত্রী পুড়ে যাচ্ছে কিন্তু ওকে বাঁচাতে পারলামনা পরে আমি লাফিয়ে নেমে যাই।

তিনি আরও বলেন, আমাদের বাসা ৭৬ নং শরৎগুপ্ত রোড গেন্ডারিয়ায়।

এ ঘটনায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসক ডাক্তার কৌশিক বিশ্বাস (৩২ ) ধোঁয়ায় অসুস্থ অবস্থায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন। অমিত দেবনাথ নামে ২৭ বছর বয়সী আরও একজন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তিনি ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে সামান্য আহত হয়েছেন।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের দায়িত্বরত একজন চিকিৎসক জানান, ট্রেনে আগুনের ঘটনায় দুজন বার্নে এসেছেন, এর মধ্যে একজন ৮ শতাংশ দগ্ধ, আরেকজন চিকিৎসক ধোয়ায় অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here