ডেস্ক নিউজ :: ইরানের শীর্ষ কমান্ডার জেনারেল কাশেম সোলেইমানি হত্যার অভিযোগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে তেহরান। একই সঙ্গে ট্রাম্পকে গ্রেপ্তার করতে ইন্টারপোলের সহায়তাও চেয়েছে দেশটি। গতকাল সোমবার এ খবর জানিয়েছে আলজাজিরা।

এ সংক্রান্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, ট্রাম্পসহ আরও বেশ কয়েকজন উচ্চপদস্থ মার্কিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এ পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। ইরানের প্রসিকিউটর আলী আলকাসিমিয়া গতকাল সোমবার বলেন, ট্রাম্প ও তার সহযোগী ৩০ জনের বিরুদ্ধে ৩ জানুয়ারি জেনারেল কাসেম সোলেইমানিকে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে। একই সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের

অভিযোগও রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ‘রেড নোটিশ’ জারি করা হয়েছে। ইরানের বার্তা সংস্থা আইএসএনএ এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।
তবে ট্রাম্পের সঙ্গে আর কার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে সে বিষয়ে স্পষ্ট কিছু বলা হয়নি। এদিকে ইন্টারপোলের তরফ থেকে ইরানের কোনো অনুরোধ পেয়েছে কিনা সে বিষয়ে মন্তব্য পাওয়া যায়নি। ইরান দাবি করেছে, অভিযুক্ত সব ব্যক্তির নাম ইন্টারপোলের কাছে দেওয়া হয়েছে এবং তাদের প্রত্যেকের পৃথক পৃথক অবস্থান সম্পর্কে তথ্য ও গ্রেপ্তারে সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে।

আলজাজিরা জানিয়েছে, এ ধরনের পরোয়ানা সাধারণত দেশের অভ্যন্তরে কার্যকর থাকে। তবে অন্য দেশে আসামি ধরতে ইন্টারপোল সহায়তা করে বা তাদের গতিবিধি সম্পর্কে তথ্য দিয়ে থাকে। কিন্তু কোনো দেশের সরকারপ্রধানের ক্ষেত্রে এ ধরনের নির্দেশনা কার্যকর হওয়ার ক্ষেত্র সীমিত।

উল্লেখ্য, ৩ জানুয়াারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদের বিমানবন্দরের কাছে মার্কিন ড্রোন হামলায় জেনারেল কাসেম সোলেইমানি নিহত হয়। ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজে হত্যার খবর প্রচার করেন। সোলেইমানি ইরানের চৌকস জেনারেলের অন্যতম। মূলত তিনি ইরানের সামরিক নকশার রূপকার। এ কারণে এ হত্যার বদলা নিতে ইরান মরিয়া।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here