'জুনাইদ আল হাবিব' এর কবিতা 'প্রেমনগরের অচেনা বন্ধু ও নীড় হারা পাখি'
জুনাইদ আল হাবিব

প্রেমনগরের অচেনা বন্ধু

আমায়তো আমি চিনি না,
অচেনা সে কতকাল ধরে।

আর আমিই বা কাকে চিনব!

পাড়ার লোকদেরও চেনা বাকি,
অচেনা রয়ে গেছে গ্রাম থেকে
নগরের পথিকদেরও!

শহরের যারা তোমরা,
তোমাদেরওতো চেনার বাকি বহুদূর!

প্রেমনগরের প্রিয়তি, তোমায়ও চিনতে পারিনি বেশ করে
ডেকেছে যে দিন আমায় বাঁধনহারা পাখি,
সেদিন আমিও তাকে চিনিনি বলে মনের কোণে
একটা বসত ভিটার জায়গা করে দিতে পারিনি!

পাহাড়ের কোলে মেঘও জানে
সেখানে গিয়েছি আমি শূন্য হয়ে,
নীলাদ্রি জানে, নীলাবতীকে ছাড়াও আমি দেখিনি
স্বর্গের মতো জল।

আমি আজও চিনি না তাকে,
কে আমার প্রেমনগরের বন্ধু
বা চলার বন্ধুওবা কে!

তোমরা কী আমাকে চেনো?
নিজেকে চেনা বড় দায়,
আজ জানতে চাই,
তোমাদের বিচারালয়ের ফলাফল!

নীড় হারা পাখি

দিলেওতো দিতে পারতে ফুল, হঠাৎ দেখাতে।
ইচ্ছে হয়েছিল কী,
তোমাকে দেখায় যেন
মন জমিনে জমেছিল উপন্যাস,
পাড়ায় ভিড় করেছে
কতো নীড় হারা পাখি,
বকের পাখা মেলা ডানার
দুই কোণে দু’জন ভর করিলে
স্বপ্নপূরে দেখা হবে কী বলো?

তুমি দু’ঠোঁট ভরেই হাসো,
ঠোঁটের চিলেকোঠায় জীবনের
রঙিন ছবি আঁকো,
আমাদের দেখা হবে একদিন,
শিমুল তলায়, নয়তো আমার সখা পাকুড় তলায়,
নয়তো ক্যাম্পাসের আমতলায়।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here