ব্রেকিং নিউজ

জুতা পায়ে শহীদ মিনারে উঠে ছাত্রদলের শ্লোগান !

তানসেন আলম, বগুড়া প্রতিনিধি: প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার আগে জুতা পায়ে শহীদ মিনারে উঠে তান্ডব করতে বাধা দেয়ায় পুলিশের উপর চড়াও হয়েছে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। হামলায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী, এএসআই আশরাফুল ইসলাম, কন্সটেবল পারভেজ সহ ৫ জন আহত হয়েছেন। পুলিশ হামলার অভিযোগে ৭ নেতাকর্মীকে আটক করেছে।

পহেলা জানুয়ারী বেলা ১২ টায় শহরের শহীদ খোকন পার্কে কেন্দ্রিয় শহীদ মিনারে এ ঘটনা ঘটে। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা সেখানে সমাবেত হচ্ছিল। ছাত্রদল কর্মীরা পুলিশের উপর হামলার পর তারা সেখান থেকে পালিয়ে যায়। এই দেখা গেছে, পহেলা জানুয়ারী প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে সকাল ১০ টা থেকে শহরে মিছিল নিয়ে আসে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। তারা বিভিন্ন এলাকা থেকে এসে সেখানে সমবেত হয়েছিল।

ছাত্রদলের ব্যানারে বিএনপির অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা মিছিলে আসে। তারা কেন্দ্রিয় শহীদ মিনারে জুতা স্যান্ডেল পায়ে উঠে স্লোগান দিতে থাকে। এসময় তাদেরকে জুতা পায়ে শহীদ মিনার থেকে নেমে যেতে বললে নেতাকর্মীরা পুলিশের সাথে বাকবিতন্ডায় লিপ্ত হয়। এক পর্যায়ে তারা পুলিশের উপর হামলা করে। তাদের হাতে থাকা প্লাকার্ডের লাঠি ও ইট পাটকেল দিয়ে পুলিশ কে আঘাত করে। এতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সহ ৫ পুলিশ সদস্য আহত হয়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী জানান, শহীদ মিনারে জুতা স্যান্ডেল পায়ে ছাত্রদলের নেতাকর্র্মীরা উঠে শ্লোগান দিচ্ছিল। এসময় তাদের নিষেধ করলে পুলিশের উপর হামলা করে। এতে তিনি নিজে সহ ৫ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। আহত এক পুলিশ সদস্য পারভেজ বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। হামলার ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে তিনি জানান।

এদিকে পুলিশের উপর হামলার ঘটনা অস্বীকার করে জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আবু হাসান ও সাধারণ সম্পাদক নুরে আলম সিদ্দিকী রিগ্যান জানান, তাদের সমাবেশ মঞ্চ ছিল দলীয় কার্যালয়ের সামনে। সেখানে তারা অবস্থান করছিল। নেতাকর্মীরা শহীদ মিনারে জড়ো হয়েছিল সেখানে পুলিশের সাথে সামান্য কথা কাটাকাটি হয়েছে, হামলার কোন ঘটনা ঘটেনি।

বগুড়া সদর থানার ওসি এস এম বদিউজ্জামান জানান, পুলিশের উপর হামলার অভিযোগে ছাত্রদলের ৭ নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে। এঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান অব্যহত রেখেছে।

এদিকে কেন্দ্রিয় শহীদ মিনারে জুতা স্যান্ডেল পরে স্লোগান দেয়ায় শহরে বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষের মাঝে বিরুপ প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এ ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বাঘায় ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা

ডেস্ক রিপোর্ট:: রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক ছাত্রলীগের নেতার ...