জি এম কামরুল হাসান’র কবিতা ‘আমি আবরার বলছি!’

আমি আবরার বলছি!

-জি এম কামরুল হাসান

(বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যায় তাকে উৎস্বর্গ করে লেখা এই কবিতা!)

 

আমি আবরার বলছি,
আমি শুধু এক টুকরো রক্ত-মাংশের শরীরের নই,
আমি বাংলাদেশ !!
আমাকে আর কতবার মারবে তোমরা?
হাজার আবরার রা জেগে উঠবেই উঠবে,
যা দেখে পালাবে সব জমেরা।
আফসোস, আমিতো অন্যায় করিনি কোন
তবে কেন মরতে হয় আমাদের বার বার
এই মৃত্যু এখানেই শেষ নয় কেন?
আমাকে হত্যা করেছে, তাতে আমি ভিতু নয়,
অন্যায়ের হাতে এ মৃত্যু আমার চরম অপমান!
এ আমি মেনে নিতে পারছিনা, দুঃখ শুধু এটায় !!

আমি আবরার,
আমিইতো বাংলাদেশ !
এতো নির্মমতা হানলে,করতে আমায় শেষ?
আমার শরীরে যত আঘাতে ক্ষত- বিক্ষত করেছ
এ ক্ষত চিহৃ চেয়ে দেখ, সারা বাংলা-
বোবা কাঁন্নায় ডোকরাচ্ছে !
বর্গীর দল আমার লাশ দেখে হাঁসছে,
আর গর্ভধারিনী মা আমার হাহাকার করে
বুক চাপড়িয়ে-চাপড়িয়ে কাঁদছে !
বাবার দু’চোখ শুকিয়ে হয়েছে মরু সাহারা
প্রকৃতির বুক ফাঁটা গগন বিদীর্ণ শব্দে
এ অত্যচার যেন উন্মাদ,বাঁধনহারা !

আমি আবরার,
আমি ওপার থেকে বলছি
এ মৃত্যু কোন মৃত্যু নয়, আমি মিথ্যার সাথে লড়েছি।
মৃত্যুর নগ্ন ছোবল আমি দেখলাম,
আমি অন্যায়ের উন্মত্ব নোংরা বিষে মরলাম !
এ হত্যায় ওদের অট্টহাঁসি, তাই বলে কি আমি হারলাম?
আমার নিরাপত্তা মাগো কেউতো এলোনা দিতে ,
তোমার অস্তিত্ব টলাতে, ওরা কুড়াল মেরেছে ভিতে,
অপলক চোখে কি দেখ মা? রয়েছ কোন স্বস্তিতে?
আমার আবাস কে করিবে নিরাপদ? কে নেবে তার ভার?
আমি যদি মা নির্ভয়ে, না নিতে পারি নিঃশ্বাস,
তোমার সম্মান রক্ষা করতে বুক পেতে দেবে কে আর?

 

 

০৬/১০/২০১৯

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

হঠাৎ করেই নেহা কক্করকে চুম্বন

ডেস্ক নিউজ :: একটি রিয়েলিটি শোয়ের অডিশন চলছিল। সেই সময় হঠাৎ করেই ...