‘জাতীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠায় প্রধানমন্ত্রীকে বিশেষ ভূমিকা রাখতে হবে’

স্টাফ রিপোর্টার :: দেশ নিয়ে এখনো ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত চলছে, সেই কারণেই প্রয়োজন মুক্তিযুদ্ধের চেতনার ভিত্তিতে জাতীয় ঐক্য। আর এই জাতীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠায় প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং বঙ্গবন্ধুর কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা বিশেষ ভূমিকা রাখবেন বলে আশা প্রকাশ করেন সাবেক রাষ্ট্রদূত অধ্যাপক ড. নিম চন্দ্র ভৌমিক।

শুক্রবার (২৭ ডিসেম্বর) তোপখানার সাংবাদিক নির্মল সেন মিলনায়তনে মহান বিজয় দিবস ও জাতীয় বীর শেখ ফজলুল হক মনি, আব্দুর রাজ্জাক ও আব্দুর কুদ্দুস মাখন স্মরণে বাংলাদেশ জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ আয়োজিত স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনার ভিত্তিতে একমাত্র জাতীয় ঐক্যই পারে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আকাঙ্খিত বাংলাদেশ গড়তে।

জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগের সভাপতি এম.এ জলিলের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশগ্রহন করেন বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের সভাপতি লায়ন মো. গনি মিয়া বাবুল, বাংলাদেশ ন্যাপের মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূইয়া, ন্যাপ ভাসানীর চেয়ারম্যান এম.এ ভাসানী, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ নেতা আ.স.ম মোস্তফা কামাল, বাংলাদেশ জাসদ নেতা হুমায়ুন কবির, আওয়ামী প্রজন্ম লীগের সাধারণ সম্পাদক রোকনউদ্দিন পাঠান, নারীনেত্রী লিজা রহমান, সংগঠনের সহ সভাপতি জাহানারা বেগম, সাধারণ সম্পাদক সমীর রঞ্জন দাস, দপ্তর সম্পাদক কামাল হোসেন প্রমুখ।

লায়ন গনি মিয়া বাবুল বলেন, জীবনকে বাজি রেখে বঙ্গবন্ধু নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ ভূমিকা রেখেছেন। যার ফলস্বরূপ বাংলাদেশ স্বাধীন। এই স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে যারা বিশেষ ভূমিকা রেখেছিলেন জাতির ঐক্য করার জন্য ও মুক্তিযুদ্ধে সেই শেখ ফজলুল হক, আব্দুর রাজ্জাক ও আব্দুল কুদ্দুস মাখনের ইতিহাস ধরে রাখার জন্য মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে একটি সঠিক ইতিহাস রচনা করা উচিত। তবেই স্বার্থক হবে আজকের এই আলোচনা সভার।

গোলাম মোস্তফা ভূইয়া বলেন, স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে যে যতটুকু ভূমিকা রেখেছিলেন ততটুকুই মূল্যায়ন করে একটি সঠিক ইতিহাস রচনা করার মাধ্যমেই দেশ পাবে আগামীতে একটি সঠিক ইতিহাস। সেই ইতিহাস ধারণ করেই জাতি এগিয়ে যাবে।

সভাপতির ভাষণে এম.এ জলিল বলেন, একজন ডাক্তার ভুল করলে একজন রুগী মারা যায়। আর একজন নেতৃস্থানীয় রাজনৈতিক নেতা ভুল করলে জাতি বিপথগামী হয়। তাই আমি বলবো অতীত ভুল-ভ্রান্তি ভুলে গিয়ে যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করে তাদেরকে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর মত ৬৯, ৭০, ৭১ সনে যেভাবে ঐক্য করেছিল সেই একইভাবে আবার ঐক্য করার মাধ্যমে জাতি পাবে সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ, সাম্প্রদায়িকতা, ক্ষুধা-দারিদ্রমুক্ত উন্নত পরিবেশের বাংলাদেশ।

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

লক্ষ্মীপুরে জিয়াউর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকী পালন

জহিরুল ইসলাম শিবলু, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর ...