স্টাফ রিপোর্টার :: যুবদের কার্যকর সম্পৃক্ততা ছাড়া টেকসইভাবে জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুপ প্রভাব মোকাবিলা করা সম্ভব নয়। জলবায়ু সংকট মোকাবিলা নীতি নির্ধারণ ও বাস্তবায়নে তরুণদের সস্পৃক্ততার কোনো বিকল্প নেই। সিলেটে জলবায়ু সুবিচার বিষয়ক এক কর্মশালায় এমন কথা উঠে এসেছে।

এজন্য বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধি রোধে বাংলাদেশসহ বিশ্বের যুব সমাজকে জলবায়ু পরিবর্তন, অভিযোজন ও গ্রিন হাউস নির্গমন কমিয়ে আনতে ব্যক্তিগত ও সামষ্টিকভাবে এগিয়ে আসতে হবে। একইসঙ্গে সরকারের গৃহীত কার্যক্রমে যুবদের সক্রিয় অংশগ্রহণে সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে।

শুক্রবার (১২ মার্চ) নগরীর অভিজাত একটি হোটেলে জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুপ প্রভাব ও উত্তরণের উপায় বিষয়ে দিনব্যাপী কর্মশালার আয়োজন করে ইয়ুথনেট ফর ক্লামেট জাস্টিস এবং ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ। 

কর্মশালার বিষয়ের উপর বিষয়ভিত্তিক আলোচনায় বক্তব্য রাখেন ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ’র  সিলেট অফিস ইনচার্জ জাহিদুল হাসান ও ইয়ুথনেট ফর ক্লাইমেট জাস্টিসের সমন্বয়ক সোহানুর রহমান। 

এসময় বক্তারা বলেন, বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধি রোধে বাংলাদেশসহ বিশ্বের যুব সমাজকে জলবায়ু পরিবর্তন, অভিযোজন ও গ্রিন হাউস নির্গমন কমিয়ে আনতে ব্যক্তিগত ও সামষ্টিকভাবে এগিয়ে আসতে হবে। একইসঙ্গে সরকারের গৃহীত কার্যক্রমে যুবদের সক্রিয় অংশগ্রহণে সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে।

এই কর্মশালায় ৫০ জন তরুণ-তরুণী অংশগ্রহণ করে ।

কর্মশালায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ইয়ুথনেট সিলেট টিমের সমন্নয়কারী ডি.এইচ.মান্না, ঢাকা টিমের সমন্নয়কারী রুহুল আমিন রাব্বি, আফসারা হোসেন হিমা প্রমুখ।

ইয়ুথনেট ফর ক্লাইমেট জাস্টিসের সমন্বয়ক সোহানুর রহমান জলবায়ু সংকট মোকাবিলায় তরুণদের ভূমিকা আরও জোরালো করার প্রতি গুরুত্বারোপ করেন। জাতীয় পর্যায়ে নীতি নির্ধারণ থেকে শুরু করে তা বাস্তবায়ন, সবকিছুতেই তরুণদের সম্পৃক্ত করার আহ্বান জানান।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here