ছালেহা বেগম’র কবিতা “জীবনের কবিতা”

“জীবনের কবিতা”

-ছালেহা বেগম

 

তুমি আমায় বললে,

তুমি কবিতা লিখতে জান?

আমি বললাম –না তো,

আর মনে মনে বললাম- আমাদের জীবনটাই তো একটা কবিতা।

এই যে ছন্দে ছন্দে বয়ে চলা চরণে সাথে চরণ মেলানো,

হঠাৎ কোথাও তাল কেটে যাওয়া,

এ তো জীবনই, কি বলো?

জীবন শব্দটাই মধুর।

যেখানে ভেসে বেড়ায়-

স্বপ্ন, কামনা, প্রেম, মমতা শ্রদ্ধা, বিশ্বাস, আস্হা, ভালোবাসা সবকিছু।

আর কবিতা তো এরই আরেকটা রুপ।

তুমি বললে, লিখে ফেলো কোন কবিতা, আমি নীরব হয়ে রইলাম।

আর মনে মনে বললাম, জীবনকে কি কখনও লেখা যায়, কাগজের পাতায়?

সে তো বহতা নদীর মতো এঁকেবেঁকে চলে যায় বহুদুর।

এরই নাম জীবন, এরই নাম কবিতা।

যে আছে তোমার ভেতরে, যা আছে আমার ভেতরে।

কে আছে এমন সুজন যে তাকে বাঁধতে পেরেছে নিজের বাহুডোরে?

তুলে আনতে পেরেছে তার কবিতার খাতায়?

তাকে তো যায় না কখনো বাঁধা আর যায় না তোলা কবিতার খাতায়।

এরই নাম জীবন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

জেসমিন দীপা’র কবিতা ‘অমানিষা’

অমানিষা -জেসমিন দীপা জন্ম থেকে হাটছি অস্ত পাড়ের পথে ধীরে ধীরে সন্তর্পনে ...