ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কাউন্সিল: সাধারণ সম্পাদক পদে নাঈমের জন্য সমর্থন ও দোয়া চাই

আজিম উদ্দিন মেরাজ :: জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সভাপতি/সাধারন সম্পাদক হওয়া ছাত্রদলের যেকোন নেতা কর্মীর জন্য সর্বোচ্চ অর্জন। দীর্ঘ রাজনৈতিক ত্যাগ তিতিক্ষার সাথে ভাগ্য যদি সুপ্রসন্ন হয়, তবেই এ ২ পদে আসীন হওয়া যায় বলে বিশ্বাস করি। তবে পদ প্রাপ্তির এ আকাংখার জন্য যদি রাজনৈতিক শিষ্টাচার ও চেইন অব কমান্ডে কোন ঘাটতি দেখা দেয়, তবে বুঝতে হবে  আপনি নিজেকে অতিমুল্যায়ন করে ফেলেছেন কিংবা অন্যদের অবমুল্যায়ন করেছেন কিংবা আপনি আসলেই এমন যেটা পদ প্রাপ্তির লোভের কারনে দৃশ্যমান হয়েছে।

নতুন ক্রাইটেরিয়ায় প্রার্থী হবার সুযোগ থাকার পর হতে আমরা মামুনুর রশিদ মামুন ভাইয়ের ছোট ভাই হিসেবে নিজেকে কাউন্সিলরদের কাছে তুলে ধরবার চেষ্টা করেছি। আমরা তিনি বিব্রত হন এমন কোন কাজে নিজেদেরকে জড়াইনি। বলেছিলাম যেকোন ব্যাপারে আপনার সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। রাজনৈতিক অভিভাবক হিসেবে সেটা তাঁরই আসলে একমাত্র অধিকারে থাকার কথা।

বৃহত্তর চট্রগ্রামের সন্তান হিসেবে তাঁর সাথে রাজনীতি করা নেতাদের মধ্যে সভাপতি প্রার্থী হিসেবে ছিলাম আমি ও সর্বশেষ ছাত্রদলের কমিটির সহ-স্কুল বিষয়ক সম্পাদক মোহাম্মাদ ইলিয়াস। আর সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী ছিল রিয়াদ ইকবাল, ওমর ফারুক শাকিল ও মোহাম্মাদ জুলহাজ। সকল প্রার্থী ও সাবেক ও বর্তমান সিনিয়র নেতাদের সাথে আলোচনা পূর্বক মামুনুর রশিদ মামুন ভাই সাধারন সম্পাদক প্রার্থী হিসেব জনাব কারীমূল হাই নাঈমকে তাঁর একমাত্র প্রার্থী হিসেবে সমর্থন প্রদান করেন। তাঁকে দেয়া কথা অনুযায়ী আমরা ৫ জনই তাঁর প্রার্থীর পক্ষে পূর্ণ সমর্থন জ্ঞাপন করে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবার অঙ্গীকার করি এবং অন্য সকল সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী তাদের প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে নেয়।

আমরা সকলেই কারীমূল হাই নাঈমের পক্ষে ঐক্যবদ্ধ।

বর্নাঢ্য রাজনৈতিক ঐতিহ্যবাহী পরিবারের সন্তান নাঈম, ৮ই ফেব্রুয়ারি মার্চ ফর ডেমোক্রেসী প্রোগ্রামে প্রেসক্লাব থেকে সম্মানিত মহাসচিবসহ গ্রেফতার হয়েছিলেন।

এসএসসি ব্যাচ ২০০০ ,সুস্থ্য, রুচিশীল, বিনয়ী, পারিবারিকভাবে জাতীয়তাবাদী রক্তের দৃড়চেতা এ উত্তরাধিকারের জন্য শুভেচ্ছা রইল।

একইসাথে পরিবারের প্রধান হিসেবে নিশ্চয়ই মামুনুর রশিদ মামুন ভাইই ভাল জানেন,তাঁর ছোট ভাইদের মাঝে কাকে দিয়ে কি সম্ভব? আমাদের কাছে ভাইয়ের সমর্থনই বিশেষ অবস্থায় না সর্বাবস্থায় গুরুত্বপূর্ণ ছিল। তাই কখনই তিনি বিব্রত হন এমন কোন কার্যকলাপে জড়িত হইনি।

কোন রকম সংশয়ের কিছু নেই।

কারীমূল হাই নাঈমই মামুন ভাইয়ের আশির্বাদপুষ্ট একমাত্র সাধারন সম্পাদক পদ প্রার্থী। তার জন্য সকলের সমর্থন ও দোয়া চাই।

শফিউল বারী বাবু ভাই যার অনুপ্রেরনা, মামুনুর রশিদ মামুন ভাইয়ের আশির্বাদপুষ্ট যিনি, রক্তে যার জাতীয়তাবাদী ধারা বহমান ইন শা আল্লাহ সম্মানিত কাউন্সিলররা ১৪ই সেপ্টেম্বর তাকেই নির্বাচিত সাধারন সম্পাদক হিসেবে বেছে নিয়ে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলন আরো বেগবান করবার পক্ষে রায় দেবে।

বাংলাদেশ জিন্দাবাদ।

 

 

লেখক: সাবেক ত্রাণ ও দূর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক, বাংলাদেশ  জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ।

 

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে বিদেশ পাঠাতে চায় পরিবার

স্টাফ রিপোর্টার :: খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিয়ে চিকিৎসা করাতে চায় তার পরিবারের ...