যশোর প্রতিনিধি ::

যশোরের চৌগাছা উপজেলায় নিরাপদ খাদ্যের প্রতি ঝুঁকছে মানুষ। তাদের আগ্রহ ও চাহিদার প্রতি খেয়াল রেখে সেখানে বিষমুক্ত সব্জী বাজার উদ্বোধন করা হয়েছে। আর প্রথম বাজারেই বাজিমাৎ। মানুষ বেজায় আগ্রহে বিষমুক্ত সব্জী বাজারে ভীড় করেছে। জনসাধারন আশা করছে সেখানে এই নতুন যুগোপযোগী বাজারটি আরো বিস্তৃত ও নাগরিক বান্ধব হবে। 

যশোরের চৌগাছা প্রান্তিক পর্যায়ে বিষমুক্ত শাক-সবজি বিক্রয়ের জন্য যাত্রা শুরু করেছে কৃষকের বাজার।

উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে এ বাজারের উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুস্মিতা সাহা।

এসময় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ড. মোস্তানিচুর রহমান, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোসাব্বির হুসাইন, থানার ওসি ইকবাল বাহার চৌধুরী, ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল কদর, হামিদ মল্লিক, বিভিন্ন এনজিও সমবায় সমিতির  বিপণন কর্মকর্তারা এবং উপজেলার গণ্যমান্য ব্যাক্তিগন উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, এ বাজারে প্রান্তিক পর্যায়ের কৃষকেরা উৎপাদিত বিষমুক্ত সবজি সরাসরি বিক্রয়ের সুবিধা পাবেন। ন্যায্যমূল্যে কৃষকের কাছ থেকে পণ্য ক্রয়ের সুযোগ পাবেন ক্রেতারা। আর এ কৃষকের সবজি বাজার উদ্বোধনের মাধ্যমে উপজেলা স্বাস্থ্য সুরক্ষা কার্যক্রম আরও এক ধাপ এগিয়ে গেল। বাজারে সবজি বিক্রেতা নারয়ণপুর গ্রামের কাজল রেখা, মুক্তদাহ গ্রামের রাজিব, নগর বর্ণী গ্রামের আমির হোসেন, আর আর এফ এনজিওর সততা সমিতির রুমা খাতুন, ফারহানা রশিদ, আসমা খাতুন বলেন, বিষমুক্ত সবজি উৎপাদন করে ন্যায্যমুল্যে বিক্রির জায়গা পেয়েছি। এতে আমারা খুশি। এ বাজার থেকে ক্রেতারাও  বিষমুক্ত সবজি কিনতে পারছে।

এতে ক্রেতা ও বিক্রেতা উভয় খুশি। আর আর এফ এনজিওর  বিপণন কর্মকর্তা তৌহিদুল ইসলাম বলেন, ‘ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে সমিতির মাধ্যমে বিষমুক্ত সবজি উৎপাদনে উদ্যোক্ততা তৈরি করেন। এই এনজিওর রয়েছে সততা, আলোর সন্ধ্যানে ও একতা সমিতি।

এনজিওর পৃষ্টপোষকতায় এসব সমিতির মহিলা সদস্যরা উৎপাতিদ বিষমুক্ত সবজি এই বাজারে বিক্রি করবেন। এছাড়া উপজেলা কৃষি অফিসের উদ্যোগ্যে উৎপাদিত বিষমুক্ত সবজি এই বাজরে বিক্রি করা হবে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা বলেন, এই বাজারের সব শাক-সবজি টাটকা ও বিষমুক্তভাবে চাষ করা।

সপ্তাহে দুদিন এখানে সবজি বিক্রি হবে। সপ্তাহে শনি ও মঙ্গলবার এ বাজারে বিষমুক্ত শাক-সবজি পাবেন ক্রেতারা। পরে এখান থেকে সারাদেশে টাটকা শাক-সবজি সরবরাহের চিন্তাও আছে কর্তৃপক্ষের। মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকালে প্রথম বাজারেই ব্যাপক সাড়া পড়েছে নিরাপদ শাক সব্জীতে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here