চিতলমারীতে দোকানদারকে পিটিয়ে হত্যা

পিটিয়ে হত্যা

মোঃ শহিদুল ইসলাম, বাগেরহাট প্রতিনিধি :: বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার খিলিগাতি বাজারে পাওনা টাকা চাওয়ায় সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসীরা রুবেল হাওলাদার (২৫) নামের একজন মাছের খাবার বিক্রেতা দোকানীকে পিটিয়ে হত্যা করেছে।

শনিবার সকালে বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে রুবেলের লাশের ময়না তদন্ত সম্পন্ন হয়েছে।

পুলিশ ও হাসপাতাল সুত্র জানায়, চিতলমারী উপজেলা সদরের খিলিগাতি বাজার এলাকায় স্থানীয় মৃত মহসীন হাওলাদারের দুই ছেলে রবিউল ও রুবেল মাছের খাবারের দোকান দিয়ে পরিবারের আয় রোজগার করে। একই এলাকার রেজাউল ফকির ওই দোকান থেকে মাছের খাবার বাকী নেয়।

গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর রেজাউল ফকির কে বাজারে পেয়ে পাওনা প্রায় ১৯ হাজার টাকার তাগিদ দিলে রেজাউল ফকির ক্ষিপ্ত হয়ে কথা কাটাকাটি করে।

এ পর্যায়ে রেজাউল ফকিরের ছেলে চিহ্নিত সন্ত্রাসী রাজু ফকির খবর পেয়ে তার সহযোগী মিলন ফকির, লালন ফকির, টিংকু ফকির , মিন্টু শওকত ও মিজানুরসহ অজ্ঞাত আরো কয়েজন সন্ত্রাসী নিয়ে রাত ৮ টার দিকে ওই দোকানে হামলা করে। লোহার রড ও লাঠিসোটা নিয়ে এলোপাতাড়ী পিটিয়ে রুবেল হাওলাদার, রবিউল হাওলাদার ও ঠেকাতে আসা আনসার মাঝি কে পিটিয়ে আহত করে এবং দোকানের নগদ টাকা ও মালামাল লুটে নেয় সন্ত্রাসীরা।

এর মধ্যে রুবেল হাওলাদার কে মাথায় আঘাত করলে তার অবস্থা বেগতিক হয়। ওই রাতেই তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এখানে তার অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় শুক্রবার বিকেলে ঢাকায় নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

চিতলমারী থানার ওসি অনুকুল চন্দ্র সরকার জানান, ঘটনার রাতেই রুবেলের মাতা শিরিনা বেগম বাদী হয়ে হামলাকারীদের নাম উল্লেখ করে থানায় অভিযোগ করলে অভিযোগটি এজাহার হিসাবে রেকর্ড করা হয়েছে। এর পরদিন রুবেল মারা গেছে। এখন এজাহারটি হত্যা মামলায় রুপান্তর করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email
0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ভাইকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যার দাবি ছোট বোনের 

  রফিকুল ইসলাম ফুলাল, দিনাজপুর প্রতিনিধি :: আমার ভাই মানসিক ভারসাম্যহীন আনোয়ারুল ...