ডেস্ক রিপোর্ট:: চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচন নিয়ে নিজের হতাশা ব্যক্ত করে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেছেন, চসিক নির্বাচন হলো ‘অনিয়মের’ একটি মডেল। এই ভোটের আগে দেওয়া আশঙ্কাই শেষ পর্যন্ত বাস্তব হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) বিকেলে নির্বাচন কমিশন (ইসি) কার্যালয় থেকে এক লিখিত বক্তব্যে চসিক নির্বাচন নিয়ে নিজের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে এমন হতাশা ব্যক্ত করেন নির্বাচন কমিশনার।

মাহবুব তালুকদার বলেন, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে যে অরাজকতা দেখা গেছে, তাতে আমি হতাশ। আমার আশঙ্কাই শেষ পর্যন্ত সত্য হলো এবং সাবধান বাণীতে কোনো কাজ হলো না। নির্বাচনের আগে ও নির্বাচনকালে মোট ৪ জনের প্রাণহানি প্রকান্তরে চারটি পরিবারের প্রাণহানির নামান্তর।

সহিংসতা, কেন্দ্র দখল, পুলিশের গাড়ি ও ইভিএম মেশিন ভাঙচুরের মতো ঘটনা নির্বাচনকে কলঙ্কিত করেছে বলেও মতামত মাহবুব তালুকদারের।

অল্প সংখ্যক ভোট পড়া নিয়েও মন্তব্য করেন তিনি।

মাহবুব বলেন, চসিক নির্বাচনে মোট ভোট পড়েছে শতকরা সাড়ে ২২ শতাংশ মাত্র। এত অল্প সংখ্যক ভোট গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার নিয়ামক হতে পারে না। এই পরিস্থিতি নির্বাচনের প্রতি জনগণের আস্থাহীনতার পরিচায়ক, যা গণতন্ত্রের জন্য এক অশনি সংকেত। স্বাধীনতার ৫০ বছরে আমরা সার্বিকভাবে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন আয়োজন করতে পারবো না এটা মেনে নেওয়া যায় না।

চসিক নির্বাচনকে ‘অনিয়মের’ নির্বাচনের মডেল হিসেবেও আখ্যায়িত করেন মাহবুব তালুকদার।

তিনি বলেন, আগামীতে দেশব্যাপী যেসব নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে, তাতে এই মডেল অনুসরণ করা হলে একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র হিসেবে বিশ্বসভায় আমরা আত্মমর্যাদা সমুন্নত রাখতে পারব না।

সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজনের জন্য নির্বাচন প্রক্রিয়ার পরিবর্তনের কথাও বলেছেন মাহবুব তালুকদার। আর এর জন্য রাজনৈতিক দলগুলোকে ভূমিকা রাখতে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here