চতুর্থবার বাধ্য হয়ে সন্তান নিয়েছিলেন অপু, জানালেন বুবলী

ডেস্ক রিপোর্টঃঃ  ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা অপু বিশ্বাস ও শবনম বুবলী। দুজন এখন আলোচনায় ঢালিউড কিং শাকিব খানকে কেন্দ্র করে। ২০১৮ সালে অপুর সঙ্গে ডিভোর্স হওয়ার পরই বুবলীকে বিয়ে করেন শাকিব। এরইমাঝে সন্তানও নেন তারা। গোপন থাকা সেই প্রেম-বিয়ে ও সন্তানের কথা গত সেপ্টেম্বরে প্রকাশ্যে আনেন বুবলী। সঙ্গে সায় দেন শাকিবও। এরপর থেকে শাকিব-বুবলী-অপু তিন তারকাকে নিয়ে তুমুল চর্চা শুরু হয়। তারা নিজেরাই নানান মন্তব্যের মাধ্যমে বিষয়টিকে উসকে দেন।

সবশেষ রবিবার (৪ ডিসেম্বর) রাতে নিজের ফেসবুক পেজ থেকে একটি ভিডিও প্রকাশ করেন বুবলী। সেখানে তিনি শাকিবের সঙ্গে প্রেম-বিয়ে-সন্তান এবং শাকিব-অপু-জয়কে নিয়েও নানান কথা বলেন। জানান, চতুর্থবার বাধ্য হয়ে সন্তান নিয়েছিলেন অপু বিশ্বাস।

অপু বিশ্বাসের গর্ভপাত প্রসঙ্গে বুবলী বলেন, ‘আপনারা অনেকেই জানেন, শাকিব খানের কথা অনুযায়ী অপু বিশ্বাসকে তিনবার অ্যাবর্শন করতে হয়েছিল। চতুর্থবার বাধ্য হয়েই তিনি সন্তান নিয়েছিলেন। এইসব ঘটনায় তো আমি নেই। তখন সিনেমাতেই আমার অস্তিত্ব নেই। কেন আমাকে দোষারোপ করা হলো যে, আমার কারণে কারও সংসার ভেঙেছে? আমার কারণে কারও সংসার, সম্পর্ক ভাঙেনি। আমি স্পষ্ট করে দর্শকের উদ্দেশে বলতে চাই।’

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ২০ জুলাই ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খানের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবন্ধ হন বলে জানান বুবলী। ২০২০ সালের ২১ মার্চ সন্তানের বাবা-মা হন তারা। তাদের সন্তানের নাম শেহজাদ খান বীর।

এর আগে ২০০৮ সালে ভালোবেসে ঘর বেঁধেছিলেন ঢাকাই সিনেমার দুই শীর্ষ তারকা শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস। তবে বিয়ের খবর টের পায়নি কেউ। ২০১৭ সালে একটি টিভি চ্যানেলের লাইভে সন্তান আব্রাহাম খান জয়সহ হাজির হন অপু। এরপর জানান, তিনি ও শাকিব বিবাহিত এবং এই সন্তান তাদেরই। ২০১৮ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি বিচ্ছেদ হয় তাদের।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here