জেসমিন বাপ্পি, চট্টগ্রাম থেকে ::

কোভিড-পরবর্তী পরিস্থিতিতে সংস্থার সেবামূলক কার্যক্রম বাস্তবায়নে আরো বেশী দক্ষ ও কৌশলী হওয়ার প্রয়োজনে আজ ১১ জুন শনিবার, সকাল ১১টায় চবি. সিনেট সদস্য ও ঘাসফুল-চেয়ারম্যান সমাজবিজ্ঞানী ড. মনজুর-উল-আমিন চৌধুরী’র সভাপতিত্বে ঘাসফুল নির্বাহী কমিটি’র ১১১তম সভা সংস্থার প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

সভার শুরুতে ঘাসফুল এর প্রতিষ্ঠাতা শামসুন্নাহার রহমান পরাণ, প্রধান পৃষ্টপোষক মরহুম এম. এল রহমানসহ গত পঞ্চাশ বছরে ঘাসফুল-সহযাত্রী যে সকল সহকর্মী মৃত্যুবরণ করছেন তাদেরকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করা হয়। উপস্থিত নির্বাহী কমিটি’র সদস্যগণ কোভিড-পরবর্তী পরিস্থিতিতে সংস্থার বিভিন্ন সেবামূলক কার্যক্রম বাস্তবায়নের অগ্রগতি ও চ্যালেঞ্জ নিয়ে পর্যালোচনা করেন।

তারা বলেন, কোভিড-পরবর্তী পরিস্থিতিতে সংস্থার সেবামূলক কার্যক্রম বাস্তবায়নে আরো বেশী আন্তরিক, দক্ষ ও কৌশলী হওয়া প্রয়োজন। সুবিধাবঞ্চিত মানুষের কল্যাণে ঘাসফুলের অঙ্গীকার পূরণে সংস্থার চলমান কার্যক্রম: স্বাস্থ্য, শিক্ষা, কৃষি, পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠির অর্থনৈতিক উন্নয়ন, শিশু সুরক্ষা, নারী উন্নয়ন, পরিবেশ ও দুর্যোগ মোকাবেলাসহ সকল সেবার পরিধি আরো বাড়ানোর সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

উক্ত সভায় অনলাইনে সংযুক্ত ছিলেন, ঘাসফুল নির্বাহী কমিটির সাধারণ সম্পাদক সমিহা সলিম, যুগ্ন-সাঃ সম্পাদক কবিতা বড়ু–য়া, নির্বাহী সদস্য প্রফেসর ড: জয়নাব বেগম, পারভীন মাহমুদ এফসিএ। এসময় আরো সংযুক্ত ছিলেন ঘাসফুল এর সিইও আফতাবুর রহমান জাফরী, পরিচালক মোহাম্মদ ফরিদুর রহমান, উপপরিচালক মফিজুর রহমান, মারুফুল করিম চৌধুরী, জয়ন্ত কুমার বসু, সহকারী পরিচালক সাদিয়া রহমান, কে.এম.জি. রাব্বানী বসুনিয়া, অডিটি ও মনিটরিং বিভাগের প্রধান টুটুল কুমার দাশ ও এসডিপি ফোকাল-পার্সন মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন।

সভায় ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের সংস্থার বাজেট, বহি: নিরীক্ষক ও আয়কর উপদেষ্টা নিয়োগ, সংস্থার কার্যক্রম পরিচালনায় দায়-দায়িত্ব অর্পণ, আর্থিক লেনদেনের ক্ষমতা অর্পণ, আভ্যন্তরীণ নিরীক্ষার নীতিমালা অনুমোদন, ৪০তম বার্ষিক সাধারণ সভার তারিখ নির্ধারণসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোচনা হয়।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here