গ্রেপ্তার হতে পারেন ইমরান খান, নেতাকর্মীদের রাস্তায় নামার আহ্বান

ডেস্ক রিপোর্টঃঃ  পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিরোধী রাজনৈতিক দল পাকিস্তান তেহরিক-ই ইনসাফের (পিটিআই) প্রধান ইমরান খানকে গ্রেপ্তার করতে পারে দেশটির পুলিশ। দক্ষিণ এশিয়ার এই দেশটির সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর সম্ভাব্য গ্রেপ্তার নিয়ে দেশটির রাজনীতিতে ফের উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে ইমরান খানের সম্ভাব্য গ্রেপ্তারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে দলীয় কর্মী ও সমর্থকদের রাস্তায় নামতে বলেছেন পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) নেতারা। সোমবার (২২ আগস্ট) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।

এর আগে বিচারক ও পুলিশ কর্মকর্তাদের প্রকাশ্যে হুমকি দেওয়ার অভিযোগে ইমরান খানের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়। ইসলামাবাদের মারগাল্লা থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনের সাত নম্বর ধারায় ওই এফআইআর দায়ের করে পুলিশ।

সংবাদমাধ্যম বলছে, ফেডারেল রাজধানী ইসলামাবাদের অতিরিক্ত দায়রা জজ জেবা চৌধুরীকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগে ইসলামাবাদ সদর ম্যাজিস্ট্রেট আলী জাভেদের অভিযোগে পিটিআই চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদের মামলা দায়ের করা হয়।

ইমরানের বিরুদ্ধে ঘৃণাত্মক বক্তৃতা এবং সেনাবাহিনী, পুলিশ এবং বিচার বিভাগের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ উসকে দেওয়ার জন্য একজন বাসিন্দার কাছ থেকে একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর এফআইআরটি দায়ের করা হয়।

মারগাল্লা পুলিশের দায়ের করা এফআইআরে বলা হয়েছে, পুলিশ ও বিচার বিভাগের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের আতঙ্কিত করার জন্য পিটিআই প্রধান ইসলামাবাদের অতিরিক্ত দায়রা জজকে হুমকি দিয়েছেন, যাতে তারা তাদের দায়িত্ব পালন করতে না পারে এবং পিটিআই-এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া থেকে বিরত থাকে।

এদিকে এফআইআর দায়ের হওয়ার পর যেকোনো সময় ইমরান খানকে গ্রেপ্তার করা হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। সিনিয়র পিটিআই নেতা ফাওয়াদ চৌধুরী একটি টুইটে কর্মীদের ইমরানের বানি গালার বাসভবনে পৌঁছাতে বলেছেন। সেখানে এখনও বহুসংখ্যক পিটিআই কর্মী উপস্থিত রয়েছেন।

টুইটে বলা হয়, ‘(…) কয়েক ঘণ্টার মধ্যে হাজার হাজার মানুষ বানি গালায় আসবে ইনশাআল্লাহ।’

পিটিআই ভাইস-চেয়ারম্যান শাহ মাহমুদ কোরেশি মিডিয়ার সাথে কথা বলার সময় পার্টি কর্মীদের প্রস্তুত থাকতে এবং ইমরানের গ্রেপ্তারের ক্ষেত্রে দলের প্রতিবাদের ডাকের জন্য অপেক্ষা করতে বলেছেন। তিনি বলেন, জোট সরকার দলীয় প্রধানকে গ্রেপ্তার করার পরিকল্পনা করছে বলে আমাদের উদ্বেগ রয়েছে এবং ইমরানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারীদের পরিণতি ভোগ করতে হবে।

একইভাবে, পিটিআই নেতা ফারুখ হাবিব এবং হাম্মাদ আজহারও ইমরানকে সম্ভাব্য গ্রেপ্তারের বিষয়ে ‘আমদানিকৃত সরকারের’ প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দিতে কর্মীদের ফয়সালাবাদ এবং লাহোরের লিবার্টি চক এলাকায় জড়ো হতে নির্দেশ দেন।

এছাড়া পাকিস্তানের সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আলী আমিন গন্ডাপুর তার অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেলে কর্তৃপক্ষকে সতর্ক করে বলেছেন, ‘ইমরান খানকে আমদানি করা সরকার গ্রেপ্তার করলে আমরা ইসলামাবাদ দখল করব এবং পুলিশের প্রতি আমার বার্তা হলো- এই রাজনৈতিক যুদ্ধের অংশ হবেন না অন্যথায় (আমরা) আপনাকে পিডিএম কর্মী হিসাবে মোকাবিলা করব।’

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here