গুজব সৃষ্টিকারীদের দ্রুত বিচারের আওতায় আনা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার :: রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক উদ্দেশে দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করে যারা আতঙ্ক সৃষ্টি করছে তাদের দ্রুত বিচারের আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান।

তিনি বলেন, ‘গুজব সৃষ্টিকারীদের একটা উদ্দেশ্য আছে, হয়ত অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করা, আতঙ্ক সৃষ্টি করা। রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক উদ্দেশ্য থাকতে পারে। যাই হোক আমরা ব্যবস্থা নিবো ।

সম্প্রতি ছেলেধরা নিয়ে গুজব সৃষ্টি করে সারাদেশে গণপিটুনির ব্যাপারে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে মঙ্গলবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, গুজবের ঘটনায় অপরাধীদের বিরুদ্ধে দ্রুত চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দিয়ে তাদের দ্রুত বিচারের ব্যবস্থা করা হবে।

সম্প্রতি গুজবের ঘটনায় সারাদেশে এ পর্যন্ত ছয়জন নিহত এবং ১৫ জন আহত হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, এসব ঘটনায় ৯টি মামলায় ৮১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

‘বাকি যাদের এখনো গ্রেপ্তার করা হয়নি, তাদেরকে খুব শিগগিরই গ্রেপ্তার করা হবে। কেউ ছাড় পাবে না এবং তাদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা হবে,’ যোগ করেন মন্ত্রী।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কামাল বলেন, ‘ছেলেধরার ঘটনায় যারা গুজব সৃষ্টি করছে, একজন অপরাধ করলেও যে শাস্তি পাবে ১০০ জন জড়িত থাকলেও একই শাস্তি দেয়া হবে। কেউ ছাড় পাবে না। এ ব্যাপারে আমরা ভিডিও ফুটেজসহ বিভিন্নভাবে অপরাধীদের শনাক্ত করবো।’

তিনি আরও বলেন, ‘ছেলেধরা নিতান্তই গুজব, তারপরও যদি এ ধরনের কোনো সন্দেহ হয় পুলিশকে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করতে হবে অথবা থানায় নিয়ে যেতে হবে।’

‘এ পর্যন্ত যে কয়েকটি ঘটনা ঘটেছে সবগুলোই নিছক গুজব। যারা গণপিটুনিতে অংশ নিয়েছে তাদের শাস্তি পেতেই হবে। ঘটনার সত্যতা যাচাই না করে কোনো আইন নিজের হাতে তুলে নেয়া যাবে না,’ যোগ করেন তিনি।

গুজব প্রতিরোধে গৃহীত পদক্ষেপ প্রসঙ্গে মন্ত্রী জানান, ইতিমধ্যে পুলিশের আইজিপি সচেতনতা তৈরির জন্য সকল এসপিকে নির্দেশ দিয়েছেন। পাশাপাশি, স্থানীয়ভাবে এবং জেলা প্রশাসকদের চিঠি দিয়ে নির্দেশ দেয়া হবে, যাতে সকল স্কুল শিক্ষককে সচেতন করা হয় যে, ছেলেধরা বলতে কিছুই নেই।

সোশ্যাল মিডিয়ায় সব খবর বিশ্বাস না করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে যারা অপরাধ করছেন সে বিষয়ে পুলিশ বসে নেই, মনিটরিং করা হচ্ছে। তাদের অনেককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এবং বাকিদেরও গ্রেপ্তার করা হবে। এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকতে বলছি।’

বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনির ঘটনায় সাতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আমরা সবাই ব্যথিত। ইতিমধ্যে সাতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, বাকিদেরও শনাক্ত করে গ্রেপ্তার করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ভয়াল ২১ আগস্ট আজ

স্টাফ রিপোর্টার :: ভয়াল ২১ আগস্ট আজ। ২০০৪ সালের এ দিনে রাজধানীর ...