ডেস্ক রিপোর্ট::  গাজায় ইসরায়েলের প্রাণঘাতী হামলার পর প্রতিক্রিয়া দেখাতে ইসলামি বিশ্বের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান। একই সঙ্গে গাজায় ইসরায়েলি যুদ্ধ ঠেকাতে কার্যকর কোনও ভূমিকা নিতে ব্যর্থ হওয়ায় জাতিসংঘের পাশাপাশি মুসলিম বিশ্বের নেতাদের তীব্র সমালোচনা করেছেন তিনি।

বুধবার তুরস্কের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল একেপি পার্টির আইনপ্রণেতাদের সাথে বৈঠকে জাতিসংঘের সমালোচনা করে এরদোয়ান বলেন, ‌‌‘‘এমনকি নিজেদের কর্মীদেরও রক্ষা করতে পারছে না জাতিসংঘ। আপনি কী ধরনের পদক্ষেপের জন্য অপেক্ষা করছেন? গাজায় জাতিসংঘের চেতনা মরে গেছে।’’

মঙ্গলবার গাজার দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর রাফার পশ্চিমের একটি শরণার্থী শিবিরে ভয়াবহ বিমান হামলা চালায় ইসরায়েল। হামাস-নিয়ন্ত্রিত গাজার এক বেসামরিক প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা বলেছেন, ইসরায়েলের ওই হামলায় কমপক্ষে ২১ জন নিহত হয়েছেন। ইসরায়েলি এই হামলার বিষয়ে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে বসার কথা রয়েছে। সেই বৈঠকের আগে বৈশ্বিক এই সংস্থার তীব্র সমালোচনা করলেন এরদোয়ান।

ইসরায়েলের হামলার ঘটনায় একক পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হওয়ায় বিশ্বের মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশগুলোরও সমালোচনা করেছেন তুরস্কের এই নেতা। তিনি বলেছেন, ইসলামি বিশ্বের কাছে আমার কিছু কথা বলার আছে, আপনারা একটি সাধারণ সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য কিসের অপেক্ষা করছেন?

সাড়ে ৮ কোটি মুসলিম জনসংখ্যার দেশ তুরস্কের এই প্রেসিডেন্ট প্রায়ই ইসরায়েলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হওয়ায় জাতিসংঘ, পশ্চিমা বিশ্ব ও মুসলিম দেশগুলোর সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, ‘‘ইসরায়েল কেবল গাজার জন্য নয়, বরং সমগ্র মানবতার জন্য হুমকি।’’

এরদোয়ান বলেন, ইসরায়েল যতক্ষণ পর্যন্ত আন্তর্জাতিক আইন না মানবে এবং আন্তর্জাতিক আইন মানার প্রয়োজনীয়তা অনুভব না করবে, ততক্ষণ পর্যন্ত কোনো রাষ্ট্রই নিরাপদ নয়। ইসরায়েল গাজায় ‘‘গণহত্যা’’ চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।

সূত্র: এএফপি।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here