ডেস্ক রিপোর্ট:: মহামারি করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিধ্বস্ত ভারত। বর্তমানে দেশটিতে হাজার হাজার মানুষ আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে। অক্সিজেনের অভাবে হাসপাতাল প্রাঙ্গণে অনেকের মৃত্যু হচ্ছে। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৪ হাজার ৩৪০ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছে ২ লাখ ৭৮ হাজার ৭৫১ জন।

প্রতিদিন লাখ লাখ লোক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় পুরো ভারতজুড়ে হাসপাতালগুলোতে বেডের জন্য হাহাকার চলছে। ঘাটতি দেখা দিয়েছে আইসোলেশন সেন্টারের। এমন অবস্থায় হাসপাতালে জায়গা না পেয়ে গাছের ডালে মাচা বানিয়ে আইসোলেশনে থাকার ব্যবস্থা করেছেন এক যুবক। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে সেই করুণ চিত্রও।

ভারতের বিভিন্ন গণমাধ্যম জানিয়েছে, ওই যুবকের নাম শিবা। ১৮ বছর বয়সী শিবা তেলেঙ্গানার নলগোন্ডা জেলার কোঠানন্দিকোন্ডা গ্রামের বাসিন্দা। গত ৪ মে তার করোনা ধরা পড়ে। বাড়িতে আলাদা থাকার জায়গা নেই। কোনো আইসোলেশন সেন্টারও খালি নেই। ফলে বাধ্য হয়ে সংক্রমণ ছড়ানো এড়াতে বাড়ির একপাশে থাকা গাছের ডালে উঠেছেন এই যুবক।

এ প্রসঙ্গে গণমাধ্যমকে শিবা বলেন, আমাদের গ্রামে মাত্র দুদিন হলো আইসোলেশন সেন্টার বানানো হয়েছে। কিন্তু সেটা অনপুযুক্ত। আশপাশের গ্রামগুলোতে আইসোলেশন সেন্টার নেই। এমনকি হাসপাতালেও নেই। তাছাড়া করোনা সম্পর্কে আমার গ্রামের মানুষরা এখনও সচেতন না। এদিকে বাড়িতে আলাদা থাকার মতো ঘর নেই। তাই করোনা যেন আমার গ্রামে না ছড়ায় সেজন্য গাছের মগডালে মাচা বানিয়ে থাকছি। নিজেকে আর সবার থেকে বিচ্ছিন্ন রাখছি।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here