সজ্ঞিব দাস, গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি ::
পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলায় সংঘবদ্ধ গরু চোর চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার তাদের বিরুদ্ধে রাঙ্গাবালী থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। পুলিশ জানায়, ওই তিনজন গরু চোর চক্রের সক্রিয় সদস্য। গরু চুরির পর রাতের আঁধারে জবাই করে মাংস বিক্রি করত তারা।
গ্রেফতার গরু চোর চক্রের তিন সদস্য হলো- ভোলার দক্ষিণ আইচা থানার চরকলমি গ্রামের সোহাগ হাওলাদারের ছেলে মিজানুর রহমান (২২), দশমিনা উপজেলার পূর্ব লক্ষীপুর গ্রামের আব্দুর রশিদ মুসুল্লির ছেলে আনিসুর রহমান (৩৫) এবং রাঙ্গাবালী উপজেলার চরমোন্তাজ ইউনিয়নের মাঝের চর গ্রামের আব্দুল কাদের হাওলাদারের ছেলে কালাম হাওলাদার (৪০)।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টায় উপজেলার চরমোন্তাজ ইউনিয়নের চরলক্ষ্মী গ্রামসংলগ্ন বন থেকে তিনটি গরু চুরি করে ট্রলারযোগে নিয়ে যাচ্ছিল চোর চক্র। এ সময় হাতেনাতে চোর চক্রের এক সদস্য মিজানুরকে ধরে ফেলেন স্থানীয় লোকজন। একপর্যায় তাকে গণপিটুনি দিয়ে তিনটি গরু এবং চুরিতে ব্যবহৃত একটি ইঞ্জিনচালিত ট্রলার চরমোন্তাজ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়। পুলিশ মিজানুরকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে পুলিশের কাছে তিনি সহযোগীদের নাম প্রকাশ করেন। এরপর শনিবার দুপুরে চরমোন্তাজ ইউনিয়নের চরবেষ্টিন মাঝের চর গ্রামে অভিযান চালিয়ে কালাম ও আনিসুরকে আটক করা হয়।
এ ব্যাপারে রাঙ্গাবালী থানার ওসি দেওয়ান জগলুল হাসান বলেন, গ্রেফতারকৃত তিনজন সংঘবদ্ধ গরু চোর চক্রের সদস্য। পটুয়াখালী জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে তারা গরু চুরি করে গলাচিপা উপজেলার উলানিয়া বাজারে নিয়ে রাতের আঁধারে জবাই করে মাংস বিক্রি করত। তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। একজনকে ইতোমধ্যে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। বাকি দুইজনকে রোববার আদালতে পাঠানো হবে।
Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here